Skip to main content

অকল্পনীয় ধ্বংসের স্বাক্ষর রেখেছে হ্যারিকেন মাইকেল

নূর মাজিদ : চতুর্থ মাত্রার শক্তিশালী হ্যারিকেন মাইকেল যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে অকল্পনীয় ধ্বংসযজ্ঞ চাইলেয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাজ্যটির গভর্নর রিক স্কট এমন কথা বলেন। এই দুর্যোগের ভয়াবহতা বর্ণনা করে স্কট বলেন, এই ঝড় অসংখ্য জীবনকে চিরতরে বদলে দিয়েছে, অসংখ্য পরিবার তাদের সর্বস্ব হারিয়েছে। বিবিসি জানায়, হ্যারিকেন মাইকেলের কারণে এখন পর্যন্ত ৬ ব্যক্তির মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে ফ্লোরিডা প্রশাসন। হ্যারিকেনের ১৫৫ মাইল বেগের ঝড়ো হাওয়ায় ফ্লোরিডার উত্তরপশ্চিম উপকূল ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে। গতকাল বুধবার মার্কিন সংবাদপত্রে এমন ধ্বংসযজ্ঞকে পারমাণবিক হামলা পরবর্তী চিত্রের সমতুল্য বলেই আখ্যায়িত করা হয়। এদিকে গত বুধবার মাইকেল আঘাত হানার পূর্বেই অন্তত ৩ লাখ ৭০ হাজার মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যাবার আহবান জানিয়েছিল মার্কিন প্রশাসন। তবে এখন তাদের উদ্বেগ হলো অনেক নাগরিকই হয়ত সতর্ক বার্তা অবজ্ঞা করে দুর্গত অঞ্চলে অবস্থান করছিলেন। তাদের ভাগ্যে কি ঘটেছে তা নিয়েই চিন্তার ভাঁজ ফ্লোরিডা প্রশাসনের কপালে। বার্তা সংস্থা এপি জানায়, ২৫৮ জন ব্যক্তি স্থানীয় কতৃপক্ষের জারি করা সতর্ক বার্তা উপেক্ষা করেছিলেন। গভর্নর রিক স্কট জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মার্কিন উপকূল রক্ষীবাহিনী ১০ টি অভিযান পরিচালনা করে ২৭ জন মানুষকে উদ্ধার করেছে। গত বুধবার রাতে স্থানীয় সময় রাত ২টায় ফ্লোরিডা মেক্সিকো বিচের নিকটবর্তী প্যানহ্যান্ডেল উপকূলে মাইকেল আঘাত হানে। যুক্তরাষ্ট্রের মূল ভূখন্ডে এখন পর্যন্ত আঘাত হানা হ্যারিকেনগুলোর মধ্যে মাইকেল অন্যতম প্রধান শক্তিশালী ঝড়। সিএনএন সম্প্রচারিত ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, ঝড়ে অনেক কাঠের বাড়ি তাদের ভিত্তি সহ উড়ে গেছে। কেন্দ্রীয় জরুরী উদ্ধার সংস্থার প্রধান ব্রোক লং মেক্সিকো বিচ এলাকাকে গ্রাউন্ড জিরো বলে ঘোষণা করেছেন। মেক্সিকো বিচ সংলগ্ন পানামা শহরে বাড়িঘর গুঁড়িয়ে মাটির সঙ্গে প্রায় মিশে গেছে, সামুদ্রিক নৌযানকে উড়িয়ে এনে লোকালয়ে ফেলেছে প্রবল শক্তিশালী ঝড়ো বাতাস। তবে ঝড়ে বিদ্যুতের সংযোগ লাইন বিপদজনকভাবে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকায় উদ্ধার তৎপরতার গতি স্লথ হয়ে পড়েছে বলে জানান পানাম শহরের মেয়র। বিশেষ করে প্রায় আড়াই হাজার অধিবাসী অধ্যুষিত শহরটির আপালাচিকোলা এলাকায় জলচ্ছাসের পানি ও বৈদ্যুতিক লাইনের সংযোগ উদ্ধার কর্মীদের বাড়তি সতর্কতা অবলম্বনে বাধ্য করছে। বিবিসি

অন্যান্য সংবাদ