প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সকাল-সন্ধ্যার কয়েকটি আমল

ওয়ালি উল্লাহ সিরাজ : মানুষ মাত্রই চিন্তা করে কীভাবে দুনিয়ায় একটু ভালো থাকবে। একটু চিন্তামুক্ত থাকবে। সেই সঙ্গে এও চিন্তা করে কীভাবে কিয়ামতের দিন আল্লাহপাকের আজাব থেকে নাজাত পাওয়া যাবে এবং আল্লাহর নৈকট্য লাভের সহজ সহজ উপায় কী? কোন আমল করলে সহজে আল্লাহপাকের নৈকট্য অর্জন করা যাবে। কোরআন ও হাদিসে অগণিত অসংখ্য তাসবিহ ও দোয়া বর্ণিত হয়েছে। কয়েকটি আমলের কথা এখানে উল্লেখ করা হচ্ছে।

১. ফজর ও মাগরিবের নামাজের পরে আউজু বিল্লাহিস সামিইল আলিমি মিনাশ শাইতানির রাজিম তিনবার পড়ে সুরা হাশরের শেষ তিনটি আয়াত পাঠ করা।

ফজিলত : যে ব্যক্তি ফজর ও মাগরিবের পরে সুরা হাশরের শেষ তিনটি আয়াত পাঠ করবে, আল্লাহপাক তার জন্য সত্তর হাজার ফেরেশতা নিযুক্ত করবেন, যাঁরা তার জন্য সন্ধ্যা পর্যন্ত দোয়া করতে থাকবেন এবং ওইদিন তার মৃত্যু হলে তার শাহাদাতের মৃত্যু হবে। আর সন্ধ্যায় অনুরূপ পাঠ করলে পরবর্তী সকাল পর্যন্ত ওই মর্তবা হাসিল হবে (তিরমিজি)।

২. একটি হাদিসে এসেছে, রাদ্বি-তু বিল্লা-হি রাব্বাও ওয়া বিল ইসলামি দ্বিনাও ওয়া বি মুহাম্মাদিন সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নাবিইয়্যাও ওয়া রাসুলা। অর্থাৎ আমি সন্তুষ্ট আছি আল্লাহকে প্রতিপালক হিসেবে, ইসলামকে দ্বীন হিসেবে ও মোহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে নবী হিসেবে পেয়ে (তিরমিজি)।

ফজিলত : যে ব্যক্তি সকাল-সন্ধ্যায় (অর্থাৎ ফজর ও মাগরিবের পর) এ দোয়াটি তিনবার করে পাঠ করবে, তার ওপর সন্তুষ্ট হওয়া আল্লাহর ওপর দায়িত্ব হয়ে যায় (তিরমিজি)।

৩. একটি হাদিসে এসেছে, সাইয়্যিদুল ইস্তিগফার- আল্লা-হুম্মা আনতা রাব্বি লা-ইলা-হা ইল্লা-আন্তা খালাক্বতানি ওয়া আনা আ’বদুকা, ওয়া আনা আ’লা আ’হ্দিকা, ওয়া ওয়া’দিকা মাছত্বোয়াতাতু, আ’উজুবিকা মিন শাররি মা ছানা’তু, আবুউ লাকা বিনি’মাতিকা আলাইয়্যা, ওয়া আবুউ লাকা বিজাম্বি, ফাগফিরলি। ফা ইন্নাহু লা ইয়াগফিরুজ্জুনুবা ইল্লাহ আন্তা (জাদুল মাআদ)। অর্থ- হে আল্লাহ! তুমি আমার প্রতিপালক। তুমি ছাড়া কোনো উপাস্য নেই। আমাকে সৃষ্টি করেছ এবং আমি তোমার বান্দা। আর আমি সাধ্যমতো তোমার অঙ্গীকার ও প্রতিশ্রুতির ওপর কায়েম আছি। আমি মন্দ যা করেছি, তা থেকে তোমার আশ্রয় চাই। আমার ওপর তোমার প্রদত্ত নিয়ামতের স্বীকৃতি দিচ্ছি। আর আমার গুনাহগুলো স্বীকার করছি। অতএব আমাকে ক্ষমা কর। কারণ তুমি ছাড়া গুনাহ ক্ষমা করার আর কেউ নেই।

ফজিলত : রসুল (সা.) বলেছেন, তোমাদের কেউ এ কথাগুলো সন্ধ্যাবেলায় বললে, অতঃপর সকাল হওয়ার আগেই তার মৃত্যু হলে তার জন্য জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যায়। অনুরূপভাবে তোমাদের কেউ তা সন্ধ্যাবেলায় বললে, অতঃপর সকালের আগেই তার মৃত্যু হলে তার জন্যও জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যায় (বুখারি, তিরমিজি)।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ