প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডিজেলে বিভক্ত জার্মান রাজনীতিবীদরা!

আসিফুজ্জামান পৃথিল : জার্মানিতে ডিজেলচালিত গাড়ি নির্মাতাদের ওপর আরোপিত জরিমানা নিয়ে বিভক্ত হয়ে পড়েছেন জার্মান রাজনীতিবীদরা। বৃহস্পতিবার অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের মন্ত্রীসভার সদস্যরা সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির উত্থাপিত এ বিলের তীব্র ভাষায় সমালোচনা করেছেন। ফলশ্রুতিতে টালমাটাল জোট সরকারের জন্য দেখা দিয়েছে নতুন সঙ্কট।

এ মাসের শুরতে সরকাল কার্বন নিস:রণ কমিয়ে আনার জন্য নতুন পরিকল্পনা দিয়েছিলেঅ্ এর আওতায় প্রস্তাব দেয়া হয়েছিলো বার্লিন এবং হামবুর্গের মতো বড় শহরগুলিতে নিষিদ্ধ করা হবে ডিজেলচালিত গাড়ির চলাচল। কিন্তু সরকারের অন্যতম শরিক মধ্য-বামপন্থী সোশ্যাল ডেমোক্রেট সদস্যরা আরো এক ধাপ এগিয়ে ডিজেলচালিত গাড়ির নির্মাতাদের জরিমানার পরামর্শ দেন। এরই বিরোধিতা করছে মেরকেলের রক্ষণশীল ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্রেট ইউনিয়নের (সিডিইউ) সদস্যরা।
অর্থমন্ত্রী ও সিডিইউ এর সদস্য পিটার আল্টমেইর এবং পরিবহণ মন্ত্রী ও ব্যভারিয়ান সিএসইউ এর সদস্য আন্দ্রেস শিউয়ারদুজনেই এ ধারণাকে বাতিল করে দিয়েছেন। তারা মনে করছেন, বিষয়টি সম্ভবত অবৈধ হতে পারে। ডয়েশেল্যান্ড ফাঙ্ক রেডিওকে আলটেমেয়ার বলেন, ‘যদি কেউ জার্মান আইন ভাঙে তবে তাকে জরিমানা করা যায়। তবে এ পদ্ধতি সাংবিধানিক কিনা তা নিয়েও আমি সন্দিহান।’

এদিকে দৈনিক সংবাদপত্র বিল্ড এর সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে রক্ষণশীলরা জার্মান গাড়ি শিল্পের প্রতি অতি-সহানুভুতিশীল এ দাবী বাতিল করে দেন। তিনি বলেন, ‘আমি জার্মান গাড়ি শিল্পের মুখপাত্র নই। আমি এমন একটি আইন পাশ করতে পারি না, যার ফলে পুরাতন ডিজেলচালিত গাড়িগুলোকে রাস্তা থেকে সরিয়ে ফেলতে হবে। কারণ এগুলো বৈধভাবেই রাস্তায় আছে।’ জার্মানিতে সম্প্রতি বেশ কিছু কোম্পানি ডিজেল চালিত গাড়ির নিস:রণ নিয়ে মিথ্যা তথ্য দিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। দেশটির অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ন অনুসঙ্গ এ শিল্প। এ শিল্পে ১০ লাখেরও অধিক মানুষ চাকরি করে। রয়টার্স

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত