প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দীর্ঘদিন পলাতক থাকা ইয়াবা ব্যবসায়ী আটক

সুজন কৈরী: দীর্ঘদিন ধরে পালিয়ে বেড়নো ইয়াবা ব্যবসায়ী মো. শাহেদকে (৩৫) রাজধানীর কদমতলীর শনির আখড়ার ২৪ ফুট এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) ঢাকা মেট্রোর একটি দল।

পিবিআই জানায়, বুধবার শাহেদকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি পুরান ঢাকার বংশালের ওসমান গণি রোডের বাসিন্দা। কক্সবাজার থেকে ইয়াবার চালান রাজধানীতে আনর পর নিজস্ব লোক দিয়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করতেন। কক্সবাজার থেকে বাসচালক ও হেলপারের মাধ্যমে ইয়াবার চালান ঢাকায় আনতেন।

পিবিআই জানায়, গত ১ মে ঢাকা-কক্সবাজার সড়কের রয়েল পরিবহনের একটি বাসের চালক মনির হোসেন ও তার সহকারী নবীন হোসেনকে দিয়ে ৫৯ লাখ টাকা মূল্যের প্রায় ৩০ হাজার ইয়াবা ঢাকায় এনেছিলেন শাহেদ। তবে ইয়াবার চালানটি হস্তান্তরের সময় মনির ও নবীন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের (সিটিটিসি) হাতে আটক হন। কিন্তু শাহেদ কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। ওই ঘটনার পর প্রায় পাঁচ মাস পলতাক ছিলেন তিনি। ওই ঘটনায় সিটিটিসির পরিদর্শক আবুল বাশার বাদী হয়ে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা করেন।

তদন্তের পর আদালতে ২৮জুন অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। ঘটনায় জড়িত পলাতক মুল আসামীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে আদালতের স্বপ্রণোদিত আদেশে পিবিআই মামলাটির তদন্তভার গ্রহণ করে এবং পিবিআইয়ের এসআই মো. ফরিদ উদ্দিন মামলার তদন্ত শুরু করেন। পিবিআইয়ের ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদারের সার্বিক তত্ত্বাবধান ও দিকনির্দেশনায় তথ্য পাওয়ার পর শাহেদকে শনির আখরা থেকে শাহেদকে গ্রেফতার হয়।

পিবিআইয়ের ঢাকা মেট্রোর বিশেষ পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ বলেন, রয়েল পরিবহনের মনির ও নবীনকে দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীতে ইয়াবা আনতেন শাহেদ। কক্সবাজারের টেকনাফের আবদুল্লাহ নামের এক ব্যক্তির কাছ থেকে ইয়াবার চালান সংগ্রহ করতেন। রাজধানীতে শাহেদের নিয়ন্ত্রণে থাকা কিছু মাদক ব্যবসায়ী ইয়াবাগুলো বিক্রি করতো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত