প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অগ্রগতি নেই দক্ষিণ সিটির নতুন চার ইউনিয়নের অবকাঠামো উন্নয়নে

শাকিল আহমেদ : অগ্রগতি নেই ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) নবসংযুক্ত নাসিরাবাদ, দক্ষিণগাঁও, ডেমরা,ও মান্ডা এলাকার সড়ক অবকাঠামো ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নে। এসব এলাকার উন্নয়ন কাজ চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে প্রথম সপ্তাহে শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এখনও শুরু করতে পারেনি সংস্থাটি।

ইতোমধ্যে প্রকল্পের পরিচালক নির্ধারণসহ নতুন এলাকায় কনসালটেন্টের মাধ্যমে প্ল্যানিংয়ের কাজ শেষ হয়েছে। নতুন চার ইউনিয়নের উন্নয়ন প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ৪৭৬ কোটি টাকা। ২০২০ সালের জুন মাসের মধ্যে এ প্রকল্পের কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। বর্তমানে অফিসিয়াল কাজ শেষ পর্যায়ে। এখন টেন্ডার প্রক্রিয়া চলছে। আগামী মাসে মাঠে কাজ শুরু হবে বলে জানান ডিএসসিসির অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আসাদুজ্জামান।

২০১৭ সালের ৯ জুন প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটিতে (নিকার) ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে ৮টি করে ইউনিয়ন যুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পরে একই বছরের ৩০ জুলাই ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনে যুক্ত হওয়া ১৬ ইউনিয়নে মোট ৩৬টি নতুন ওয়ার্ড গঠন করে গেজেট প্রকাশ করে স্থানীয় সরকার বিভাগ। এ নিয়ে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে মোট ওয়ার্ডের সংখ্যা দাঁড়ায় ১শ ২৯টি। নতুন ওয়ার্ডসহ ঢাকার দুই সিটির আয়তন ১শ ২৯ বর্গকিলোমিটার থেকে বেড়ে দাঁড়ায় ২শ ৭০ বর্গকিলোমিটারে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে (ডিএসসিসি) যুক্ত হওয়া ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে মাতুয়াইল, সারুলিয়া, ধনিয়া ও শ্যামপুর ইউনিয়নে ৭শ ৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে রাস্তা, নর্দমা, ফুটপাত, এলইডি বাতি স্থাপনসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজ প্রায় শেষের দিকে। বাকি ৪ ইউনিয়নের মধ্যে নাসিরাবাদ, দক্ষিণগাঁও, ডেমরা ও মান্ডা ইউনিয়নের অবকাঠামো উন্নয়ন কাজ সেপ্টেম্বরে শুরু হওয়ার কথা ছিলো কিন্তু এখনো কাজ শুরু করতে পারেনি ডিএসসিসি। তাই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ শেষ করা নিয়েও রয়েছে সংশয়।

এসব এলাকার উন্নয়ন কাজের মধ্যে রয়েছে ৬৫.৭২ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ, ৭.৯৫ কিলোমিটার ফুটপাত নির্মাণ, ১৭ টি আরসিসি ব্রিজ নির্মাণ, ৮৪ কিলোমিটার নর্দমা নির্মাণ, ১১৬.১৮ কিলোমিটার রাস্তায় এলইডি বাতি স্থাপনসহ ইউটিলিটি লাইন স্থানান্তর। সিটি করপোরেশনের আওতাভুক্ত হওয়ার পরে এবারই প্রথম বারের মত উন্নয়নের ছোঁয়া পাবে এসব ইউনিয়নের বাসিন্দা।

এ বিষয়ে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল বলেন, চার ইউনিয়নের অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ আরও আগেই শুরু হওয়ার কথা ছিলো কিন্তু নানা কারনে আমরা কাজটি শুরু করতে পারিনি। তবে দরপত্র প্রক্রিয়াধীন রয়েছে আগামি মাসে কাজ শুরু হতে পারে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত