প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শুক্রবার মুক্তি পাচ্ছে না কোনও সিনেমা!

মহিব আল হাসান: দুর্গাপূজা উপলক্ষে আগামীকাল শুক্রবার দেশের প্রেক্ষাগৃহে ছবি মুক্তির তালিকাটা দীর্ঘ হয়েছিল। নতুন পুরানো ছবিসহ মোট চারটি ছবি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু একে অপরের সাথে টেক্কা দিতে গিয়ে ছবি মুক্তি পাওয়া নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। আগামীকাল বড়পর্দায় ছবি মুক্তি পাচ্ছে না বলে অনেকে ধারণা করছেন। হল পাওয়ার দিক থেকে ‘নায়ক’ ও ‘মাতাল’ সিনেমা এগিয়ে থাকলেও আইনি ঝামেলার কারণে ছবি দুটি মুক্তিতে বাধার সৃষ্টি হয়েছে। চারটি ছবির মধ্যে ‘আসমানী’ সিনেমাটি মুক্তি থেকে সড়ে দাঁড়িয়েছে। তবে অপর একটি ‘মেঘকন্যা’ সিনেমা মুক্তিকে বাধা না থাকলেও ছবিটি মাত্র একটি হল পেয়েছে ঢাকার বাহিরে। ঢাকায় কোনও হল না পাওয়ায় ‘মেঘকন্যা’ ছবিটি মুক্তি দিবেন না বলে জানিয়েছেন ছবিটির প্রযোজক এ জেড জাহাঙ্গীর কবির। কাজেই ধরে নেওয়া যায় আগামীকাল শুক্রবার শেষ পর্যন্ত চারটি ছবির কোনোটিই আর মুক্তি পাচ্ছে না।

গত রোববার ‘নায়ক’ ও ‘মাতাল’ শিরোনামের চলচ্চিত্র দুটি মুক্তি দেওয়ার বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন ‘মেঘকন্যা’ চলচ্চিত্রের প্রযোজক জাহাঙ্গীর কবির। এই রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ছবি দুটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দিতে পারবেন না। হাইকোর্টের বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রিট করেন। ‘নায়ক’ ও ‘মাতাল’ নামে নতুন ছবিকে পুরোনো সিনেমা হিসেবে মুক্তি দেওয়া কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ১২ অক্টোবর ‘মেঘকন্যা’ ও ‘আসমানী’ নামে দুটি নতুন চলচ্চিত্র মুক্তির কথা। চলচ্চিত্র দুটির পরিচালকও নতুন। প্রায় তিন মাস আগে এ দিনটিতে চলচ্চিত্র দুটি মুক্তির জন্য প্রযোজক সমিতিতে নিবন্ধন করা হয়েছে। হঠাৎ করেই ‘নায়ক’ ও ‘মাতাল’ এই দুটি নতুন চলচ্চিত্র কথিত পুরোনো চলচ্চিত্র হিসেবে একই দিনে মুক্তির ঘোষণা দেওয়া হয়।

‘নায়ক’ সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন যুগল নির্মাতা ইস্পাহানি আরিফ জাহান। এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে ইস্পাহানি আরিফ জাহান,‘ আমরা ছবিটি মুক্তি দেওয়ার জন্য চেষ্টা করছি। ‘আমরা আইন মেনে চলতে চাই। নোটিশ পেয়েছি এবং আইনগত ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমরা এখনো আগামীকাল ছবি মুক্তি নিয়ে আশাবাদী। সন্ধ্যায় পুরো বিষয়টি বলতে পারব। আইনের মাধ্যমে ছবিটি মুক্তিতে কোনও বাধা না থাকে সে জন্যই আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।

‘মাতাল’ ছবির প্রযোজক শরিফ চৌধুরী বলেন, ‘আমরা গতকাল কোর্ট থেকে একটি কাগজ পেয়েছি। কিন্তু সেখানে বিচারপতির কোনো স্বাক্ষর নেই। তারপরও আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আমরা এরই মধ্যে আমাদের আইনজীবীর সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছি। আজ সন্ধ্যায় আমরা বলতে পারব ছবিটি আগামীকাল মুক্তি পাবে কি না। আমি ছবিটি একটি সিনেমা হলে মুক্তি দিয়েছিলাম গত ৫ অক্টোবর। আগামীকাল শুক্রবার আমরা পুরাতন ছবি হিসেবে সারা দেশে মুক্তি দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। কিন্তু এর মধ্যে আইনি জটিলতায় পরতে হবে তা ভাবিনি।’

আগামীকাল ১২ অক্টোবর দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির কথা ছিল ‘মেঘকন্যা’ ও ‘আসমানী’ ছবি দুটির। মুক্তি দেওয়ার জন্য প্রযোজক সমিতিতে তিন মাস আগে ১২ তারিখ মুক্তির জন্য নির্ধারণ করে নিবন্ধন করেছিল ছবি দুটির প্রযোজক। কিন্তু হঠাৎ করে ‘নায়ক’ আর ‘মাতাল’ সিনেমা মুক্তির তালিকায় আসলে সম্যার সৃষ্টি হয়। গত ২৮ সেপ্টেম্বর দেশের একটি সিনেমা হলে মুক্তি পায় ‘নায়ক’ আর ‘মাতাল’ ছবিটি একটি সিনেমা হলে মুক্তি পায় গত ৫ অক্টোবর। এমনটিই দাবি করছেন ছবি দুটির প্রযোজকরা।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বৃহস্পতিবার বিকেল ও কাল শুক্রবার সাপ্তাহিক বন্ধের দিন, আদালতের কার্যক্রম বন্ধ থাকবে, তাই ‘মাতাল’ ও ‘নায়ক’ আইনি বাধা এড়িয়ে শুক্রবার মুক্তি পাওয়া নিয়ে বেশ চ্যালেঞ্জ। তবে ধারণা করা হচ্ছে ছবি দুটি মুক্তি পাবে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ