প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রযুক্তির কারণে মানসিক সমস্যা বাড়ছে

আশিক রহমান : প্রযুক্তির কারণেই আমাদের দেশের নাগরিকদের মানসিক সমস্যা বাড়ছে, এমনই মনে করে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ডা. মো. তাজুল ইসলাম। একান্ত সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, বিশ্ব দ্রুত ডিজিটালাইজড হচ্ছে। ফেসবুক, ভাইবার, টুইটারসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে আসক্তি বাড়ছে মানুষের। বিশেষ করে তরুণদের মধ্যে এ প্রবণতা বেশি লক্ষ্য করা যায়। প্রযুক্তির প্রতি আসক্তির কারণে সম্পর্কেও টানাপড়েন সৃষ্টি হয়। পারিবারিকভাবেও সংঘাত-সংঘর্ষ হয়। জীবন যত জটিল হচ্ছে ততই মানসিক চাপ বাড়ছে। তিনি আরও বলেন, আমাদের মধ্যে ধৈর্য কমে যাচ্ছে। সমাজে মাদকাসক্তের সংখ্যাও বাড়ছে। এর প্রভাবও মানসিক স্বাস্থ্যে পড়ছে। আমাদের কাছে যারা মানসিক স্বাস্থ্যের চিকিৎসা নিতে আসেন তাদের মধ্যে প্রায় ৫০ শতাংশই তরুণ। মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় সবচেয়ে বেশি পড়ে চৌদ্দ বছরের কিশোররা। এদের আত্মহত্যার প্রবণতা থাকে অনেক বেশি। এ সময় তারা বিভিন্ন কারণে মানসিক চাপ অনুভব করে।

এক প্রশ্নের জবাবে এই মনোবিদ বলেন, মানসিক স্বাস্থ্য ভালো রাখতে প্রয়োজন সহযোগিতার সম্পর্ক। ব্যক্তির দক্ষতা বাড়ানো। আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে শেখা।

তিনি বলেন, সামাজিক চাপ ম্যানেজ করতে জানতে হবে। একইসঙ্গে টেকনোলজি ফ্রি সময় বের করতে হবে পরিবারকে। দিনের নির্দিষ্ট একটা সময় প্রযুক্তির মধ্যে কেউ থাকতে পারবে না। একসঙ্গে বসে একে-অপরের ভালো-মন্দ শেয়ার করার সংস্কৃতি গড়ে ওঠা জরুরি। পারিবারিক ও সমাজ সচেতনতা মানসিকভাবে সুস্থ থাকার টনিক হিসেবে কাজ করবে। সম্পাদনা : সালেহ বিপ্লব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ