প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৮২০ কোটি ডলারের সিল্করুট প্রকল্প বিবেচনা করছে পাকিস্তান

আসিফুজ্জামান পৃথিল : দেনার শঙ্কায় চীনের প্রস্তাবিত সিল্ক রুট প্রকল্প নিয়ে পুনরায় ভাবছে পাকিস্তান। আরব সাগর থেকে হিন্দকুশ পর্বতমালার পাদদেশ পর্যন্ত উপনিবেশিক আমলের একটি রেল লাইন পুনরায় সচল করে এই সিল্কর্যুট চালুর পরিকল্পনা ছিলো। এতে ব্যয় হবে ৮২০ কোটি ডলার। এতেই পিছিয়ে আসতে পারে পাকিস্তান। রয়টার্স

পাকিস্তানে, চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ এর অন্যতম প্রধান প্রকল্প করাচী থেকে উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর পেশোয়ারের এ রেললাইন। এই প্রকল্পের ব্যয় নিয়ে নতুন করে দুশ্চিন্তায় পড়েছে পাকিস্তানের নতুন সরকার। ইমরান খানের নেতৃত্বে নতুন সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই তারা সরকারের দেনা এবং খরচ কমাতে উঠেপড়ে লেগেছে। দেনা কমাতে বিক্রি করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের গাড়ি। এ বিক্রির তালিকায় রয়েছে মহিষও! দেশটির পরিকল্পনা মন্ত্রী খশরু বখতিয়ার সম্প্রতি রয়টার্সকে বলেছেন, ‘আমরা একটি মডেল দাঁড় করানোর চেষ্টা করছি। আমরা চাই না পাকিস্তান সরকার কোন রকম ঝুঁকিতে পড়ুক।’
পাকিস্তানের নতুন সরকার শুরু থেকেই দেশটির সকল বিআরআই প্রকল্প পুর্ণবিবেচনা করতে চাচ্ছিল। কিন্তু চীনের চাপে এখনই তা করা সম্ভব হয়ে উঠছে না। তাই অতিরিক্ত ব্যয়সাপেক্ষ প্রকল্পগুলো অন্তত বিবেচনা করে দেখতে চায় ইমরান খানের সরকার।

তবে চীন এ ধরণের কোন সম্ভাবনার কখা অস্বীকার করেছে। রয়টার্সকে এক বিবৃতিতে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় বলেছে, ‘পাকিস্তানে যে সকল প্রকল্প শেষ হয়ে গেছে সেগুলো ভালোভাবেই চলছে। আর যে সব প্রকল্প এখনও শেষ হয়নি সেগুলোর কাজও ভালো ভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে।’ পাকিস্তানে চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও জিং রয়টার্সকে জানিয়েছেন পাকিস্তানে বিঅ্যান্ডআর এর সকল প্রকল্পই পারষ্পরিক সহায়তার ভিত্তিতেই চলছে। এবং চীন তাদের লক্ষ্য অবশ্যই পূরণ করবে। সম্পাদনা : ইকবাল খান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত