প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

‘ডিরেক্টরস গিল্ড এর নির্বাচনে ভোট গণনায় গড়মিল পুনরায় গণনা আগামীকাল’

বিনোদন প্রতিবেদক : গেল শুক্রবার ছোট পর্দার নির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টরস গিল্ড এর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এর ফলাফল প্রকাশ করা হয় গতকাল শনিবার। নির্বাচনে নতুন মেয়াদে সংগঠনটির সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন জনপ্রিয় নাট্য পরিচালক সালাউদ্দিন লাভলু। সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জয়ী হয়েছেন নির্মাতা এস এ হক অলিক।

তবে গতকাল থেকে আলোচনায় আসে ভোট গণনায় কারচুপি হয়েছে। অনেক নির্মতা দাবি করেন ভোট গণনায় গড়মিল হয়েছে। তাদের মতে ভোট কাস্ট হয়েছে ৪৩২ তাই ভোটার সংখ্যা এটাই হবে। তবে কখনও ৪৫৬ ভোট হবে না। এই গড়মিল থেকেই একপ্রকার জটিলতা হয়েছে বলে দাবি ওঠে।
বিষয়টি প্রথমে মৌখিক পর্যায়ে থাকলেও তা সবার সামনে নিয়ে আসেন জনপ্রিয় নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী। তিনি এবার সভাপতি পদে নির্বাচন করে পরাজিত হয়েছেন। তিনি আজ রোববার সকালে নিজের ফেসবুক ওয়ালে এক স্ট্যাটাসে লেখেন,‘আমি মাত্র ৪ ভোটে হেরেছি। কিন্তু ২০১ জন ভালোবাসার ডিরেক্টর কে অজস্র ধন্যবাদ যারা আমাকে ভোট দিয়েছেন। আমি কৃতজ্ঞ। যারা নির্বাচিত হয়েছেন সকল কে অভিনন্দন। খুব খুব সুন্দর সমাবেশে ভোট হয়েছে। কিন্তু আমার একজন সাধারণ মানুষ হিসাবে প্রশ্ন আছে। অন্য সব পদ বাদই দিলাম। সভাপতি, সেক্রেটারী, প্রচার সম্পাদক এবং অর্থ সম্পাদক এই পদে মাত্র একটি ভোট। তবে তো ভোট সংখ্যা সমান হবার কথা! ৪৩২ সবার টাই হবার কথা। তাইনা? এমন কি যে পদে দুটি আসন সেখানেও যোগ করলে সেইম সংখ্যাই হবার কথা। নাকি ভুল বললাম? কম বেশি তো হবার কথা না। ভোট নষ্ট হলে পুরো পেপার বাতিল হবে। শুধু একজনের না। বাতিল হলে সবার টাই হবে। তাইনা? নিয়ম আমি, আমরা জানি।

তিনি ডিরেক্টরস গিল্ড এবং নির্বাচন কমিশনের কাছে সেই প্রশ্নের জবাব চেয়েছেন। এরপর আজ রোববার ১টার দিকে আরেক পোস্টে লেখেন, ‘এইমাত্র নির্বাচন কমিশনের মহসিন স্যারের সাথে কথা হয়েছে। তিনি সব শুনে খুব অবাক হলেন। বললেন রিচেক দিবেন সবার সাথে কথা বলে। কথা হলো ডিরেক্টরস গিল্ডের নতুন প্রেসিডেন্ট সালাউদ্দিন লাভলু ভাইয়ের সাথেও। তিনি নিজেও অবাক এবং তিনি জানিয়েছেন শপথ নেবার আগেই তিনি রিচেক করবেন। স্যালুট টু ইউ লাভলু ভাই। একজন বিজয়ীর মুখেই এমন কথা শোভা পায়।’

চয়নিকা আরও লেখেন, ‘আমি মনে করি নির্মাতা হিসাবে শপথ নেবার আগেই সবার সামনে আবারো রিচেক করা উচিত এবং এটাই সভাপতি এবং সম্পাদকের সর্বপ্রথম কাজ হবে নির্মাতাদের জন্য। অনেক ধন্যবাদ লাভলু ভাই।’

আরেকটি পোস্টে এসে চয়নিকা চৌধুরী জানান,‘ আগামীকাল দুপুর ১২টায় মিটিং হবে। মিটিং এরপর ভোট গণনা পুনরায় করা হবে।’

নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন খ্যাতিমান পরিচালক আমজাদ হোসেন। নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করছেন নাট্য ব্যক্তিত্ব মামুনুর রশীদ ও নির্মাতা কাওসার চৌধুরী। আপিল বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত