প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মঠবাড়িয়ায় ভাইয়ের হাতে ভাই টেঁটাবিদ্ধ

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ছোট ভাইয়ের হামলায় টেটাবিদ্ধ হয়ে বড় ভাই নুরু হাওলাদার (৪০) গুরুতর জখম হয়েছে। শনিবার রাতে উপজেলার পূর্ব গুলিশাখালী গ্রামে এ নৃশংস ঘটনা ঘটে। টেটাবিদ্ধ অবস্থায় নুরুকে পুলিশ উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। আহত নুরু হাওলাদার পূর্ব গুলিশাখালী গ্রামের আ. ছত্তার হাওলাদারের ছেলে।

হাসপাতাল সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার পূর্ব গুলিশাখালী গ্রামে ছত্তার হাওলাদারের মেঝ ছেলে নুরু ও ছোট ছেলে সাদ্দাম হাওলাদারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে শনিবার বিকেলে গাছ থেকে পাকা সুপাড়ি সংগ্রহ নিয়ে বোন জামাই পাঞ্জু মিয়া ও ছোট ভাই সাদ্দামের সাথে নুরুর বাক-বিতন্ডা হয়। পরে বড় ভাই শাহজাহান হাওলাদার বাড়ি এসে বিরোধ মিমাংসা করে দেন।

এর পর রাত ৮ টার দিকে দ্বিতীয় দফায় ঝগড়া শুরু হলে নুরু বড় ভাইকে ফের নালিশ জানাতে বাড়ি থেকে বের হন। এতে ছোট ভাই সাদ্দাম ও তার বোনজামাই পাঞ্জু ক্ষিপ্ত হয়ে নুরুকে টেঁটাবিদ্ধ করে পুকুরে ফেলে পালিয়ে যায়। এসময় নুরুর ডাকচিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে প্রতিবেশি ফারুক নামের এক ব্যাক্তিকে কুপিয়ে জখম করে। পরে পুলিশে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নুরুকে টেঁটাবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম ছরোয়ার জানান, পারিবারিক বিরোধে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগের পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত