প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘মৃত্যুর পর যেন আমায় শহীদ মিনারে না নেওয়া হয়’

দেবদুলাল মুন্না : চিত্রকর মুর্তজা বশীর বর্তমানে অসুস্থ। তিনি বলেছেন, ‘মৃত্যুর পর তার লাশ যেন শহীদ মিনারে না নেওয়া হয়। মরণোত্তর স্বাধীনতা পুরস্কার যদি দেওয়া হয় তবে সন্তানরা যেন গ্রহণ না করে। আমি এখন ভীষণ অসুস্থ। কিন্তু নির্দলীয় লোক বলে কোনো সরকারি সহায়তা নেই।’ তিনি বায়ান্নোর ভাষা আন্দোলনে যুক্ত ছিলেন। রক্তাক্ত শহীদ ভাষাসৈনিক আবুল বরকতকে যারা হাসপাতালে নিয়েছিলেন, তাদের মধ্যে এই শিল্পীও ছিলেন। মুর্তজা বশীর ২০১৩ সাল থেকে শ্বাসকষ্টজনিত রোগে ভুগছেনে। এছাড়াও রয়েছে বার্ধক্যজনিত বিভিন্নরোগ।

তিনি বলেন, চিকিৎসকদের পরামর্শে রোজ রাত ৯টা থেকে ভোর অবধি প্রায় ছয় ঘণ্টার মতো কৃত্রিম অক্সিজেন নিয়ে বাঁচতে হচ্ছে তাকে। মুর্তজা বশীর বলেন, ‘সম্প্রতি শ্বাসকষ্টটা বেড়েছে; সঙ্গে অক্সিজেনটা কমে যাচ্ছে। অক্সিজেন মেশিন দিনে রাতে চলছে। ফলে মেশিনগুলোও দুর্বল হয়ে যাচ্ছে। আরেকটা মেশিন কিনতে হবে; মেশিনটার দাম তিন লাখ টাকা। এত টাকা কোথায় পাব?’

তাহলে চিকিৎসার অর্থসংস্থান কীভাবে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বন্ধু-বান্ধবদের বলেছি। কিন্তু এটা তো অনেকটা ভিক্ষাবৃত্তির মতো। সন্তানদের বলেছি, মারা যাওয়ার পর যেন আমাকে শহীদ মিনারে নেওয়া না হয়। মৃত্যুর পর আমাকে স্বাধীনতা পুরস্কার দেওয়া হলে তা যেন গ্রহণ করা না হয়।’

‘সরকার অনেককে চিকিৎসার জন্য টাকা দিচ্ছে। আমি যেহেতু নির্দলীয় লোক, সেহেতু কোনো সহায়তা পাব না’ বলেন একুশে পদকপ্রাপ্ত এ চিত্রশিল্পী। ভাষাবিজ্ঞানী ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহর ছেলে মুর্তজা বশীরের জন্ম ১৯৩২ সালের ১৭ আগস্ট, ঢাকায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত