প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

‘ঢালাওভাবে খেলাপি ঋণ নিয়ে সমালোচনা উচিত নয়’

আশিক রহমান : ঢালাওভাবে খেলাপি ঋণ নিয়ে সমালোচনা করা উচিত নয় বলে মনে করেন জনতা ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান ও অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ড. আবুল বারকাত। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, ঢালাওভাবে খেলাপি ঋণ নিয়ে কথা বলা ঠিক নয়। ঢালাওভাবে বললে পাবলিকের মধ্যে একটা বেড (খারাপ) সিগনাল যাবে। এর ফলে যারা স্বেচ্ছায় খেলাপি নন এমন ব্যবসায়ীদের মধ্যেও একটা বেড সিগনাল যাবে, তারা তখন ব্যবসা-ই করবে না। অনুৎসাহিত হবেন। তিনি আরও বলেন, আমাদের এখানে শিল্পায়ন হওয়া দরকার। অবকাঠামোগত উন্নতির কাজ আমরা করছি। বিদ্যুৎ, রাস্তা, ফ্লাইওভার ইত্যাদি করে যাচ্ছি। এসব করে কোনো লাভ হবে না যদি শিল্পায়ন করতে না পারি। ভবিষ্যতে শিল্পায়নের ভিত্তি হিসেবে এই অবকাঠামোগুলো তৈরি করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে যারা শিল্প করবেন তারা যদি কোনো কারণে ডি-মোটিভেটেড (অনুৎসাহিত) হন তাহলে খারাপ বার্তা যাবে। ফলে খেলাপি জাতীয় বিষয়গুলো নিয়ে খুব নির্মোহভাবে কথাবার্তা বলা উচিত।

এক প্রশ্নের জবাবে ড. আবুল বারকাত বলেন, খেলাপিদের আপনি দুভাগে ভাগ করতে হবে। কে ইচ্ছেকৃতভাবে খেলাপি হচ্ছে, আর কারা অনিচ্ছাকৃত খেলাপি। ইচ্ছেকৃতভাবে যারা খেলাপি হচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া সহজ। আর ইচ্ছেকৃতভাবে খেলাপি নন যারা তাদেরকে বোঝার চেষ্টা করতে হবে, তার ঘটল কী, সমস্যাটা কোথায় হচ্ছে?
তিনি আরও বলেন, আমাদের বাপ-দাদা অসুস্থ হলে তো তাকে আইসিউতে নিয়ে যাই। ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিট থেকে তো অনেকেই বেঁচে ফিরেন আমাদের মধ্যে। একটি ইন্ডাস্ট্রিও যদি এমন একটি পরিস্থিতির মধ্যে পড়ে, ইন্ডাস্ট্রির যারা মালিক, তারা যদি রিয়েলি সৎ মানুষ হন, এখন উনি আইসিউতে আছেন, চিকিৎসক হিসেবে কী আপনি তাকে ইনজেকশন দিয়ে তাকে মেরে ফেলবেন, নাকি বাঁচানোর চেষ্টা করবেন? বিষয়টি সেভাবেই দেখতে হবে আমাদের।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত