প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১০ লাখ কোটি ডলারের মন্দা ঠেকাতে মার্কিন সরকার অসহায়

রাশিদ রিয়াজ: হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতিবিদ মার্টিন ফেল্ডস্টেইন সাবধান করে বলেছেন, মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভ কার্যত অর্থনৈতিক সংকট এবং পরবর্তী মন্দা ঠেকাতে কার্যত ক্ষমতাহীন হয়ে পড়েছে। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে এক প্রতিবেদনে মার্টিন লিখেছেন, মার্কিন অর্থনীতিতে দীর্ঘমেয়াদী সুদের হার বৃদ্ধি আগামী কয়েক বছরের মধ্যে মন্দার হারকে এমনভাবে বৃদ্ধি করবে যা গড় মন্দার চেয়ে গভীর ও দীর্ঘতর হতে পারে। কিন্তু এরপরও দুর্ভাগ্যবশত ফেডারেল রিজার্ভ বা মার্কিন সরকার কোনো ভূমিকা পালন করছে না।

প্রতিবেদনে মার্টিন বলেন, দরিদ্র মানুষের জীবন যাত্রার মান বা তাদের আয়ের অনুপাত যদি ৪০ শতাংশের নীচে থাকে তাহলে ১০ লাখ কোটি ডলারের পারিবারিক সম্পদ নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। পারিবারিক সম্পদ ও ভোক্তাদের ব্যয়ের মধ্যে মার্কিন অর্থনীতিতে এধরনের সম্পর্কের কারণে বছরে প্রায় ৪০ হাজার কোটি ডলারের সম্পদ হ্রাস এবং এতে পারিবারিক সম্পদের পরিমানও ২ শতাংশ হ্রাস পাবে। এধরনের সংকট প্রভাব ফেলবে ব্যবসা ও বিনিয়োগের ওপর যা মন্দাকে ডেকে আনতে বাধ্য করবে। একই সঙ্গে স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি ঋণের ক্ষেত্রে সুদের ফারাক খুবই কম রয়েছে।

মার্টিন বলেন, অধিকাংশ মন্দা স্বল্পমেয়াদী বা গড়ে এক বছরের কম সময় ধরে স্থায়ী হয়। ফেডারেল তহবিল হ্রাসের মাধ্যমে তা মোকাবেলা করা হয়। কিন্তু কিন্তু এধরনের মন্দা কয়েক বছর ধরে ঘটতে থাকলে ২০২০ সালের মধ্যে ফেডারেল তহবিলে সুদের হার ৩ শতাংশে বেড়ে যাবে। আগামী বছরগুলোতে ফেডারেল রিজার্ভে ঘাটতি ১ লাখ কোটি ডলার ছাড়িয়ে যাবে। একই সঙ্গে মার্কিন সরকারের ঋণের পরিমাণ জিডিপির ৭৫ ভাগ থেকে শতভাগ ছাড়িয়ে যেতে পারে।

তবে রয়টার্সকে ফেডারেল রিজার্ভের চেয়ারম্যান জেরোমি পাওয়েল বলেছেন, আগামী দুই বছরে মার্কিন অর্থনীতির মন্দায় পড়ার কোনো আশঙ্কা নেই এবং ধারাবাহিকভাবে সহনীয় পর্যায়ে সুদের হার বৃদ্ধি করা হচ্ছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিশ্লেষণ বলছে মার্কিন অর্থনীতিতে গতি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত