প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

বাংলাদেশের খেলায় মুগ্ধ সাবেক ক্রিকেট তারকারা

স্পোর্টস ডেস্ক : আবারো একবার শিরোপার খুব কাছে যেয়ে খালি ফিরতে হলো। সেই শেষ বলের বেদনা আবারো ফিরে এলো। ২০১৮ এশিয়া কাপ আরেকবার ফিরিয়ে আনল ২০১২ ও ২০১৬ সালের স্মৃতি। তাই বলে এই টুর্নামেন্ট থেকে বাংলাদেশের কোনো প্রাপ্তি নেই, এটা ভুলেও ভাবা যাবে না। বিশ্বের সাবেক ক্রিকেটারদের কাছ থেকে প্রশংসা আদায় করে নিয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। এশিয়া কাপ ফাইনালে হারলেও বাংলাদেশকে অভিনন্দন জানিয়েছেন সাবেক তারকারা। প্রশংসা করেছেন লিটন-মিরাজদের লড়াকু মনোভাবের।

যারা বাংলাদেশ বন্দনায় মেতেছেন তার মধ্যে অন্যতম বিরেন্দর শেবাগ। ২০১০ সালে বাংলাদেশ সফরে আসার পর থেকেই এ দেশে অজনপ্রিয় এক ব্যক্তি শেবাগ। কারণ, বাংলাদেশ দলকে তার সাধারণ মানের মনে হয়েছিল। সুযোগ পেলে এখনো বাংলাদেশের কড়া সমালোচনা করেন তিনি। কিন্তু শুক্রবারের ফাইনালের পর বাংলাদেশকে প্রশংসা শুনিয়েছেন শেবাগ! সাকিব-তামিমকে ছাড়াই ফাইনালে উঠেছে। ২২২ রানের টার্গেটকে শেষ বলে টেনে নেওয়ার এ মনোভাব মুগ্ধ করেছে শেবাগকে। এ নিয়ে তিনি টুইট করেন, ‘বাংলাদেশ, এত কাছে তবু কত দূরে। এশিয়া কাপ জেতার জন্য ভারতকে অভিনন্দন। গুরুত্বপূর্ণ কিছু খেলোয়াড় ছাড়াও এমন লড়াই উপহার দেওয়ায় বাংলাদেশকে টুপি খোলা সম্মান জানাচ্ছি। এ জয়ের পরও ভারতের উন্নতির অনেক জায়গা আছে। আমি আশাবাদী ওরা আরও ভালো করবে।’

কম যাননি ভিভিএস লক্ষ্মণও। বাংলাদেশের এই লড়াই, শরীরী ভাষায় মুগ্ধ তিনিও। ভারতের সপ্তম এশিয়া কাপ জয়ের বন্দনার চেয়ে টুইটারে বাংলাদেশ স্তুতিতেই সময় বেশি দিয়েছেন সাবেক ব্যাটসম্যান। বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে টুপি খোলা সম্মান জানাচ্ছেন লক্ষ্মণ, ‘এশিয়া কাপ জেতায় ভারতকে অভিনন্দন। সাকিব ও তামিমকে ছাড়াই খেলেছে বাংলাদেশ। তবু দুর্দান্ত লড়াই করেছে, হাল ছাড়েনি এবং নিজেদের শেষ বিন্দু দিয়ে চেষ্টা করেছে। এই কারণে বাংলাদেশের প্রতি টুপি খোলা সম্মান।’

এশিয়া কাপের বিশ্রামে থাকা কোহলিও মেতেছেন টাইগারদের প্রশংসায়। দলের শিরোপা জয়ের মঞ্চে থাকতে না পারলেও জানিয়েছেন অভিনন্দন আর গেয়েছেন বাংলাদেশ বন্দনা। ভারতকে কঠিন পরীক্ষায় ফেলা বাংলাদেশকে নিয়ে কোহলি লিখেছেন, ‘বাংলাদেশকে ধন্যবাদ কঠিন লড়াইয়ের জন্য।’ টুইটারের প্রথম অংশে তিনি লিখেছেন ভারতকে অভিনন্দন জানান তিনি।

অন্যদিকে পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার এবং বর্তমান ধারাভাষ্যকার রমিজ রাজা তো মোস্তাফিজ-মুশফিক ও মাশরাফিতে রীতিমত মুগ্ধ। তিনি এশিয়া কাপ ২০১৮’র সেরা একাদশে রেখেছেন মুশফিকুর রহিম ও মোস্তাফিজুর রহমানকে। তবে দিনের শেষে কষ্টটা পেয়েছে বাংলাদেশই। ২২২ রান করে শিরোপার আশা না করলেও তা একেবারে হেলায় ফেলায় জিততে দেয়নি ভারতকে। তাদের নাভিশ্বাস ছেড়েই জিততে হয়েছে শিরোপা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত