প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চাপ নিয়ে সন্দিহান বিশ্লেষকরা

হ্যাপি আক্তার : মিয়ানমার যাতে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হয় সেজন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় কতটা চাপ দিতে পারছে সেটি নিয়ে বেশ সন্দিহান বিশ্লেষকরা। এ সংকট নিয়ে বিবিসি বাংলার সাথে সাক্ষাৎকারে তারা বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চাপ ছাড়া রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের জন্য মিয়ানমার অগ্রসর হবে না।

সাবেক পররাষ্ট্র সচিব তৌহিদ হোসেন বলেন, গত এক বছর আগে একটি চুক্তি সই করা হয়েছে রোহিঙ্গাদের ফেরত নেবার জন্য। তারপরেও কোনো কিছুই করছে না তারা, সেটি প্রমাণিত হয়েছে। মিয়ানমার বিভিন্নভাবে গরিমসি করছে যাতে দেরি হয় রোহিঙ্গাদের ফেরত নেবার বিষয়ে। তাদের সমস্যাটি আমাদের দেশের ঘাঁড়ে চাপিয়ে দিচ্ছে।

রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো বিষয়ে আন্তর্জাতি সম্প্রদায় কতটা আগ্রহী সেটি এখন বড় প্রশ্ন বলে মনে করছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্কের অধ্যাপক রোখসানা কিবরিয়া বলেন, রোহিঙ্গারা যাতে দীর্ঘ সময় বাংলাদেশের ভূÑখন্ডে দীর্ঘ সময় ভালোভাবে থাকতে পারে সেদিকেই বেশি মনোযোগ দিচ্ছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়, এমনটাই মনে হচ্ছে। যারা রোহিঙ্গাদের দেখতে আসেন তারা চাচ্ছেন, রোহিঙ্গার যাতে এখানে লেখা-পড়া, স্বাস্থ্যসেবা এবং এমনটিও বলা হচ্ছে যে তারা এই দেশের নাগরিত্ব পায়। এখানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ভূমিকা নিয়ে ‘জটিলতা আছে’ বলে উল্লেখ করেন তিনি ।

রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মানবাধিকার লংঘনের তথ্য-প্রমাণ জোগার করতে জাতিসংঘের উদ্যোগের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছে চীন।

এমন প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের সাবেক পররাষ্ট্র সচিব তৌহিদ হোসেন মনে করেন, রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের জন্য চীনের ওপর নির্ভর করা বাংলাদেশের উচিত হবে না। তিনি বলেন, চীন বাংলাদেশ ও মিয়ানমার উভয় দেশেরই বন্ধু। সে ক্ষেত্রে চীন সত্যিকার অর্থে সুন্দর একটি ভূমিকা পালন করতে পারতো কিন্তু সেটা চীন করেনি। লজ্জাজনকভাবে যে অন্যায় মিয়ানমার করেছে তার সমর্থন দিয়েছে চীন। তবে চীনকে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে শক্তভাবে বলা দরকার তার যে কাজটি করছে তাতে আমাদের দেশ খুশি নয়।

যে কোন দেশে শরণার্থী সংকটের সময় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় সংকট সমাধানের জন্য প্রকৃত কাজ করার চেয়ে বিভিন্ন বক্তব্য বিবৃতির মধ্যেই বেশি সীমাবদ্ধ থাকে বলে উল্লেখ করেন বাংলাদেশের সাবেক এ পররাষ্ট্র সচিব।

রোহিঙ্গা সংকটের কথা উল্লেখ করে, নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে দেয়া ভাষণে শেখ হাসিনা বলেন, রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেবার কথা মিয়ানমার মৌখিকভাবে বললেও বাস্তবে তারা কোন কার্যকর ভূমিকা নিচ্ছে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ