প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্প ও সুনামিতে লণ্ডভণ্ড শহর, নিহত ৩৮৪(ভিডিও)

ডেস্ক রিপোর্ট: ইন্দোনেশিয়ায় ৭.৫ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পের পর সৃষ্ট সুনামির আঘাতে কমপক্ষে ৩৮৪ জন নিহত হয়েছে। শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় দেশটির মধ্যাঞ্চলের দ্বীপ সুলাওয়েসিতে শক্তিশালী এ সুনামি আঘাত হানে। সুনামির ফলে সৃষ্ট ৬/৭ ফুট উঁচু ঢেউ দেশটির সুলাওয়েসি দ্বীপের পালু শহরকে ভাসিয়ে নেয় বলে ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

সামাজিক মাধ্যমগুলোতে সুনামি ঢেউয়ের বেশকয়েকটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। সেগুলোতে, বিশাল সামুদ্রিক ঢেউয়ের সঙ্গে জলোচ্ছ্বাস দেখা যাচ্ছে। ভয়ার্ত লোকজন চিৎকার করে কাঁদছে, কেউ কেউ ঘরবাড়ি ছেড়ে রাস্তা দিয়ে পালিয়ে যাচ্ছে।

সুনামির আঘাতে অনেক ঘরবাড়ি ও মসজিদ ভেঙে পড়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। প্রচুর গাছপালাও ভেঙে পড়েছে।

শনিবার দেশটির জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থার মুখপাত্র পুরো নুগরোহ জানান, ‘সুনামির আঘাতে বহু ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়েছে। এখানে-সেখানে পড়ে আছে মৃতদেহ। তারা সেগুলো উদ্ধারের কাজ করছেন।’ তবে নিহতের নির্দিষ্ট সংখ্যা জানাতে অস্বীকার করেছেন তিনি।

তবে স্থানীয় এক চিকিৎসকের বরাত ইন্দোনেশিয়ার মেট্রো টিভি জানায়, সুনামিতে ৩৮৪ জন নিহত হয়েছে এবং তাদের মরদেহ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১২ জন। এ ছাড়া অনেককে খুঁজে পাচ্ছে না তাদের পরিবার। পালু ও ডাঙ্গাল দুই শহর মিলিয়ে প্রায় ছয় লক্ষ মানুষ ঘরছাড়া। পুরো এলাকার বিদ্যুৎ ও যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

এর আগে শুক্রবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা ২ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় ৪টা ২ মিনিট) পালু সুলাবেসির ৭৮ কিলোমিটার উত্তরে ৭.৫ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে। এরপর দেশটিতে সুনামি সতর্কতা জারি করে উপকূল এলাকার বাসিন্দাদের নিরাপদ দূরত্বে সরে যেতে বলা হয়। সেখানে বসবাসকারী সাড়ে তিন লাখেরও বেশি মানুষকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়। সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে মৎস্যজীবী ও জেলেদের। কিন্তু এর মাত্র এক ঘণ্টা পরেই তুলে নেয়া হয় সুনামি সতর্কতা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত