প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

মৃত সন্তানকে লকারে ৫ বছর লুকিয়ে রাখলেন মা!

ডেস্ক রিপোর্ট : ভিতরে তখনো প্লাস্টিকে জড়ানো রয়েছে একটি শিশুর দেহ। দেহ বললে ভুলই হবে। আসলে ভিতরে প্লাস্টিকে জড়ানো অবস্থায় রাখা রয়েছে কতগুলো মানুষের হাড়গোড়। মৃত্যুর ৫ বছর পর মাংস গলে হাড় বেরিয়ে যাওয়ারই তো কথা! মা তার মৃত সন্তানকে রেল স্টেশনের লকারে ৫ বছর ধরে লুকিয়ে রেখেছেন! হন্তদন্ত হয়ে থানায় ঢুকে আউড়ে চলেছিলেন এক মহিলা। লকারের ভিতরে প্লাস্টিকে মুড়ে আমিই তাকে লুকিয়ে রেখেছি! প্রথম নিজের কানকেই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না পুলিশ কর্তারা। কিন্তু পরে মহিলার কথা শুনে রেল স্টেশনের ওই লকার খুলতেই আঁতকে ওঠেন তারা।

ঠিক এমনই অত্যাশ্চর্য অভিজ্ঞতা হল টোকিও পুলিশের। টোকিওর উগুইসুদানি রেল স্টেশন থেকে ওই শিশুর হাড় উদ্ধার করে পুলিশ।

সূত্র জানায়, শিশুটির দেহ রেখে ৫ বছর ধরে নিয়মিত লকারের ভাড়া পরিশোধ করছিলেন শিশুটির মা ইমিরি সুজাকি। ৪৯ বয়সী এই নারী ৫ বছর আগে মৃত শিশুটির জন্ম দিয়েছিলেন।

জাপানের রেল স্টেশনগুলোতে লকার ভাড়া নিতে পারেন যে কেউ। দরজায় কয়েন ঢুকালেই ভাড়া নেয়া শুরু হয়ে যায়। এমন একটি লকারে শিশু সন্তানের মরদেহ সংরক্ষণের দায়ে এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে টোকিওর পুলিশ।

মরদেহ সংরক্ষণের কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে ইমিরি। বেকার থাকার পরও লকার ব্যবহারের জন্য প্রতিদিন ১ দশমিক ৮০ ডলার সমমূ্ল্যের ভাড়া পরিশোধ করতেন তিনি।

পুলিশকে ইমিরি বলেন, ‘একটি জীবিত শিশু জন্ম দিতে না পেরে আমি বিপর্যস্ত হয়ে পড়ি। তাই মরদেহটি সংরক্ষণ করি। আমি কিছুতেই এটির সৎকার করতে দিতে পারিনি।
সূত্র : পরিবর্তন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত