প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাঁধ বানাতে ১৪শ কোটি ডলার চাঁদা তুলতে চান ইমরান খান

কায়কোবাদ মিলন : জনগণের কাছে হাত পেতে টাকা তুলে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী দেশের জন্য দুটি বিশালকায় বাধ নির্মাণ করতে চাইছেন। ইমরান খান পাকিস্তানের জনগণকে জাতীয়তবাদী চেতনায় উজ্জীবিত করে বাধের জন্য প্রয়োজনীয় সমুদয় তহবিল ১৪০০ কোটি ডলার সংগ্রহ করতে চাইলেও বিরোধীরা বলেছেন , এ অসম্ভব এবং অবাস্তব চিন্তা। অবশ্য ইমরান খান যদি এই দুই বাধ নির্মাণে সফল হয়েই যান তা বিশ্বে এক অনন্য নজির সৃষ্টি করবে।

টেলিভিশন ভাষণে ইমরান খান পাকিস্তানের জনগণকে আবেদন জানিয়ে বলেছেন, আমাদের মাত্র ৩০ দিনের পানি জমা রয়েছে।একই সঙ্গে আমাদের অনেক ঋণ রয়েছে যা আমাদের অবিলম্বে ফেরত দিতে হবে। ইমরান খান বলেন, আমরা নিজেরাই আমাদের তহবিলের মাধ্যমে বাধ দুটি তৈরি করতে পারি। হ্যাঁ, আমরা যদি ইচ্ছা করি।
পাবলিকের টাকা দিয়ে এর আগে কিকষ্টারার নামে একটি প্রকল্প হয়েছে। মাত্র ৩২ দিনে এই প্রজেক্টের জন্য ২০ মিলিয়ন ডলার সংগ্রহ করা সম্ভব হয়েছে বলে ওয়ালষ্ট্রীট জার্নাল জানিয়েছে। ইমরান খান বলেন, বিদেশে বহু পাকিস্তানির বাস। তারা প্রত্যেকে যদি ১ হাজার ডলার দেন তাহলে আমরা বাধ তৈরি করে ফেলতে পারি।

ইমরান বলেন, আমি তাদের টাকার গ্যারান্টার। তাদের টাকা খোয়া যাবেনা। পাকিস্তানের ডন পত্রিকার অর্থনৈতিক সাংবাদিক খালেক কিয়ানি বলেছেন, ইমরান খানের চিন্তা বাস্তবসম্মত নয়। তিনি বলেন, এত বড় প্রকল্প করার টাকা সংগ্রহের কোন রেকর্ড আমাদের নেই। তবে পাকিস্তানের পানি ধরে রাখার জন্য যে রিজার্ভার প্রয়োজন এ ব্যাপারে কারো মধ্যে কোন সংশয় নেই।

পাকিস্তানে নদী এবং হিমবাহের কোন অভাব নেই। কিন্তু সকলেই এক মত যে, ২০২৫ সালে পাকিস্তান ভয়াবহরকম পানীয় জলের সংকট দেখা দেবে। পাকিস্তানে মোহমান্দ বাধটি নির্মাণ সম্ভব। তবে আরও বড় মাপের ডিয়ামার-বাসা বাধটি করা খুব জটিল হবে। তবে বাধ নির্মাণের এলাকা নিয়ে ভারতের সঙ্গে বিরোধ রয়েছে। ফলে আন্তর্জাতিক মহল বহু পূর্ব থেকেই বাধ নির্মাণে পাকিস্তানের পক্ষে ঝুঁকছে না।

এদিকে পাকিস্তানের মিত্র চীন এমন সব শর্ত দিচ্ছে পাকিস্তানের পক্ষে তা মানা সম্ভব নয়। তবে ইমরান খানের চাঁদা তুলে প্রকল্প গড়ার অভিজ্ঞতা রয়েছে। তিনি ৩ শত মিলিয়ন তহবিল সংগ্রহ করে দুটি ক্যান্সার হাসপাতাল বানিয়েছেন। ডন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত