প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

গুয়েতেমালার সেনাবাহিনী গণহত্যায় জড়িত : আদালত

কায়কোবাদ মিলন : গুয়েতেমালার আদালত সর্বসম্মত রায়ে বলেছে , দেশটির সামরিক বাহিনী গণহত্যা চালিয়েছে। তবে আদালতের তিন বিচারকের মধ্যে দুই জন গোয়েন্দা প্রধান যোসে মাউরিসিও রডরিগুজকে সব অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে।

বুধবার রায়ে আদালত জানায়, দেশে যুগের অধিক ধরে চলা সহিংসতায় গোয়েন্দা প্রধান কোন ভাবে অংশ নেননি এবং তার নির্দেশে গণহত্যা সংঘটিত হয়নি। ১৯৬০ সালে শুরু হয়ে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত চলা যুদ্ধে ২ লক্ষ লোক নিহত এবং ৪৩ হাজার লোককে জোরপূর্বক গুম করা হয়েছে। ঘটনার শিকার হওয়াদের মধ্যে ৮০ শতাংশই আদিবাসি মায়া সম্প্রদায়ের লোক। গুয়াতেমালা সিটি থেকে ২২৫ কিলোমিটার দূরবর্তী মায়া উপজাতি অধ্যূষিত এলাকায় সামরিক বাহিনীর অত্যাচারের ঘটনা বেশি ঘটে।

ট্রাইবুনালের চেয়ারম্যান বলেন, বেসামরিক লোকদের ওপর ব্যাপক হারে নির্যাতন করা হয়। চেয়ারম্যান আরও বলেন, বেঁেচ যাওয়া বহু লোকের সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। তাদের বর্ণনা এক কথায় লোমহর্ষক। গুম ,খুন , হত্যা, শিশু চুরি,ধর্ষণ, বোমাবাজি এবং না খাইয়ে মারার কত যে ঘটনা ঘটেছে তার ইয়াত্তা নেই।
দুই বিচারকের রায়ের সঙ্গে ভিন্নমতাবলম্বি বিচারক বলেন, গোয়েন্দা প্রধান রডরিগেজ এবং স্বৈরশাসক এফরাইন রিয়োস মন্ট নির্যাতনের মাধ্যমে ১৮ শত ইক্্িরল বেসামরিক লোককে হত্যার জন্য দায়ি। ১৯৮২ সালে এক বছরের বেশি কিছু সময়ে সংঘটিত ওই দুই ঘাতকের নির্দেশে ১০ হাজারেরও বেশি লোক নিখোঁজ হয়েছে। আলজাজিরা

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত