প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সবজির বাজার অপরিবতির্ত, বেড়েছে ইলিশের দাম

এস এম এ কালাম: গত সপ্তাহের তুলনায় চলতি সপ্তাহে সবজির বাজার অপরিবতির্ত থাকলেও বেড়েছে ইলিশ মাছের দাম। গত সপ্তাহের তুলনায় চলতি সপ্তাহে প্রতি কেজিতে ৫০ থেকে ১০০ টাকা আর হালি প্রতি ২০০ থেকে ৪০০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে ইলিশের দাম। তবে অন্যান্য মাছের দাম স্থিতিশীল রয়েছে।

শুক্রবার রাজধানীর মিরপুরের ২ নং সেকশন, সেনপাড়া, কাজীপাড়া ও শেওড়াপাড়া বাজারঘুরে এবং ক্রেতা বিক্রেতার সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজারঘুরে দেখা গেছে, চলতি সপ্তাহে ইলিশ ৯০০ গ্রাম থেকে ১ কেজি ওজনের হালি প্রতি ৩ হাজার থেকে ৩২০০ বিক্রি হচ্ছে যা গত সপ্তাহে ২৮০০ থেকে ৩০০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে ৭৫০ গ্রাম থেকে ৮০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ কেজি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা যা গত সপ্তাহে ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা করে বিক্রি হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ৬০ ফিট সড়কে মাছ বিক্রেতা রুবেল হোসেন বলেন, আজ দু’দিন ধরে ইলিশের বাজার একটু চড়া। তিনি বলেন, মাছের আমদানী থাকলেও প্রতি সাইজের মাছের হালিতে ২০০ থেকে ৪০০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

এদিকে শেওড়া পাড়া বাজারে মো নাসির হোসেন নামে একজন ক্রেতা বলেন, সবজি দাম গত সপ্তাহের মতই রয়েছে। তবে ইলিশের দাম একটু বেশিই মনে হচ্ছে।

অন্যদিকে চলতি সপ্তাহে বাগদা চিংড়ি প্রতিকেজি ৪০০ থেকে ৫৫০ টাকা, গলদা ৬০০ থেকে ৮৫০ টাকা, বাতাশা ৫০০ থেকে ৫৫০ টাকা, কাতল ২০০ থেকে ২৫০ টাকা, রুই ২২০ থেকে ৩০০ টাকা, তেলাপিয়া ১৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে।

তবে চলতি সপ্তাহে সবজির বাজার অপরিবতির্ত রয়েছে। শিম বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০টাকা কেজি। গাজর ৮০ টাকা, টমেটো ১০০ টাকা, বরবটি ৫০ থেকে ৬০ টাকা, পটল ৪০ থেকে ৫০ টাকা, চিচিঙ্গা ৫০ থেকে ৬০ টাকা, ঢেঁড়শ ৪০ থেকে ৫০ টাকা, কচুর ছড়া ৪০থকে ৫০ টাকা, করলা ৪০ থেকে ৬০ টাকা ও কাকরোল ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে। এছাড়া লাউ প্রতিপিস ৪০ থেকে ৫০ টাকা, বাঁধাকপি ৪০ থেকে ৫০ টাকা, ফুলকপি ৪০ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পুঁইশাক ২৫ থেকে ৩০ টাকা, লাল শাক ১৫ থেকে ২০ টাকা, কলমি শাক ১০ থেকে ১৫ টাকা ও ডাটা শাক ২০ থেকে ৩০ টাকা দরে আঁিট প্রতি বিক্রি হচ্ছে।

অপরদিকে, মসলার দাম অপরিবতির্ত রয়েছে আদা কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা।পেঁয়াজ দেশি প্রতিকেজি ৫০ টাকায় এবং ইন্ডিয়ানটা ৩০ টাকায় বিক্রি করতে দেখা গেছে। রসুন (দেশি) ৬০ , রসুন (ইন্ডিয়ান) ৮০ টাকা। অপরদিকে লেটুস পাতা প্রতিটি ১৫ টাকা, পুদিনাপাতা ১০০ গ্রাাম ২০ টাকা, ধনেপাতা প্রতি ২৫০ গ্রাম ২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।
অন্যদিকে, বাজারে মাংসের দাম আগের মতই রয়েছে। গরুর মাংস কেজি প্রতি ৪৮০ থেকে ৫০০ টাকা, ছাগলের মাংস ৭৮০টাকা, ব্রয়লার মুরগী ১৪০টাকা এবং লেয়ার মুরগী ২৩০টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

ভোজ্যতেল লিটারপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ১০৮ টাকায়, মসুর ডাল ৯০ থেকে ১০০ টাকা কেজি এবং চাল নাজির ৬০ থেকে ৮০ টাকা, মিনিকেট ৫৫ থেকে ৬০ টাকা, মিনিকেট (সিরাজ) ৫৬ থেকে ৬০ টাকা, আটাস ৫০ টাকা, এলসি ৪২ টাকা, মোটা ৪৮ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে দেখা যায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত