প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোহিঙ্গা গণহত্যার জন্য মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিচার দাবি মালয়েশিয়া

লিহান লিমা: রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা চালানের দায়ে এবার মিয়ানমারের সেনাপ্রধান ও অন্যান্য কমান্ডারদের বিচার দাবি করল মালয়েশিয়া। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় জানায়, মিয়ানমারের সরকারকে অবশ্যই রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতার দায়ভার নিতে হবে। সেই সঙ্গে দেশটি জাতিসংঘে নিরাপত্তা পরিষদকে এই অপরাধের জন্য আন্তর্জাতিক বিচার নিশ্চিতকরণে পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানায়।

মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল কেনেডি জোয়ান বলেন, ‘রোহিঙ্গা সংকটের জরুরি মোকাবেলা ও দীর্ঘমেয়াদি সমাধান প্রয়োজন। দিন দেশে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় কখনোই এই মানবিক বিপর্যয়ের শুধুমাত্র প্রত্যক্ষদর্শী হয়ে থাকতে পারে না।’ জোয়ান আরো বলেন, আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সুপারিশ ও পরামর্শের পরও মিয়ানমারে পরিস্থিতির কোন উন্নতি হয় নি। এই সময় তিনি বাংলাদেশের প্রতি তার দেশের অকুণ্ঠ সমর্থনের কথা ব্যক্ত করেন।

এক সপ্তাহ আগে যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্রেট ডিপার্টমেন্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী পরিকল্পিতভাবে নৃশংসতা চালিয়েছে। গত বৃহস্পতিবার কানাডার পার্লামেন্ট রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের হত্যাকা-কে ‘গণহত্যা’ বলে আখ্যা দেয়। জাতিসংঘের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশন ও মিয়ানমারকে গণহত্যা ও জাতিগত নিধনের জন্য অভিযুক্ত করে। একমাস আগে প্রকাশিত জাতিসংঘের পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদনে বলা হয়, মিয়ানমার মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন, গণহত্যা, গণধর্ষণ , জ্বালাও-পোড়াও ও শিশু নির্যাতন চালিয়েছে। আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতও মিয়ানমারের সেনা প্রধান মিন অং হ্লিয়ান ও ৫ জেনারেলের বিরুদ্ধে তদন্ত চালু করে। এশিয়ান করসপনডেন্ট

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত