প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের রায়
পরকীয়া অপরাধ নয়

ডেস্ক রিপোর্ট: সমকামিতার পর এবার বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক বা ব্যভিচার ‘অপরাধ নয়’ জানিয়ে এ সংক্রান্ত দেড়শ বছরের পুরনো একটি আইন বাতিল করে দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। ফলে দেশটিতে এখন থেকে বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্ক বৈধতা পেল।

এর আগে গত ৬ সেপ্টেম্বর আদালত এক ঐতিহাসিক রায়ে ঔপনিবেশিক আমলের ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারাকে অসাংবিধানিক ঘোষণা দিয়ে সমকামিতার বৈধতা দেয়।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ সর্বসম্মতিক্রমে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৭ ধারাকে বাতিল করে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের ওপর থেকে আইনি বাধা তুলে নিয়ে রায় ঘোষণা করেন। খবর: এনডিটিভি ও আনন্দবাজারের

সুপ্রিম কোর্ট যে রায় দিয়েছে তাতে বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্ক নিয়ে ১৫৮ বছরের পুরনো একটি বিধান বাতিল হয়ে গেছে। ভিক্টোরিয়ান আমলের আইনটিতে এ ধরনের সম্পর্কের ক্ষেত্রে নারীদের ‘সম্পত্তি’ হিসেবে বিবেচনা করে শুধুমাত্র পুরুষকে সাজা দেওয়ার ব্যবস্থা ছিল।

ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৭ ধারার এ আইনে বলা ছিল, কোনো ব্যক্তি কোনো বিবাহিত নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করলে এবং তাতে ওই নারীর স্বামীর অনুমতি না থাকলে বিষয়টিকে ধর্ষণ বিবেচনা করে ব্যভিচারে লিপ্ত পুরুষের পাঁচ বছর পর্যন্ত জেল, জরিমানা কিংবা উভয় দণ্ড হতে পারে।

বিবাহিত নারীকে ‘অপরাধের শিকার’ বিবেচনা করে ওই আইনে সম্পর্ক স্থাপনকারী পুরুষকেই দোষী হিসেবে গণ্য করার বিধান ছিল।

রায় দিতে গিয়ে প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র বলেন, ‘কোনো বিবাহিত নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক থাকা অপরাধ নয়।’ সেই সঙ্গে পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ আইনটিকে ‘পশ্চাৎপদ’ আখ্যা দিয়ে বলেন, এই আইন বহাল থাকার অর্থ হলো ‘অসুখী মানুষকে’ দণ্ড দেওয়ার বৈধতা দেওয়া।

দণ্ডবিধিতে বিবাহিত নারীদের ক্ষেত্রে স্বামীর সম্মতি ছাড়া অন্য কোনো পুরুষের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক রাখলে সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের কারাদণ্ড, অর্থদণ্ড ও উভয়-দণ্ডের বিধান ছিল।

ঔপনিবেশিক এই আইন সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, কোনো স্বামী তার স্ত্রীর প্রভু বা মালিক হিসেবে বিবেচিত হতে পারেন না। ভারতের সংবিধানে স্পষ্ট করে উল্লেখ করে দেওয়া আছে, নারীকে ব্যক্তিগতভাবে অসম্মানিত করে বা বৈষম্য সৃষ্টি করে এমন যেকোনো আইন এই সংবিধানের পরিপন্থী হবে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশও এ ধরনের আইনগুলো অনেক আগেই বিলোপ করে দিয়েছে বলে জানান তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত