প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উন্নয়ন করবেন এমন ব্যক্তিকে ভোট দেবেন ভোটাররা

নিজস্ব প্রতিবেদক : ১৯৯১ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত ৬টি সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-৩ আসনে ৪ বার বিএনপি, একবার জাতীয় পার্টি ও একবার স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচিত হন। তবে, আগামী নির্বাচনে এ আসনটি নিজেদের দখলে নিতে চলছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের প্রতিযোগিতা। আর নিরপেক্ষ ভোটগ্রহণ হলে আসনটি দখলে আসবে বলে মনে করে বিএনপি। ভোটাররা বলছেন, উন্নয়নে কাজ করবেন এমন ব্যক্তিকে ভোট দেবেন তারা।

মুরাদনগর উপজেলার ২২টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত কুমিল্লা-৩ আসন। ১৯৯১ সালের নির্বাচনে বিএনপির রফিকুল ইসলাম মিয়া নির্বাচিত হন। ১৯৯৬ সালের ষষ্ঠ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও জয় পান তিনি। এরপর সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মোফাজ্জল হোসেন কায়কোবাদ নির্বাচিত হন। বিএনপিতে যোগদান করে ২০০১ ও ২০০৮ সালের নির্বাচনেও তৃতীয় বারের মতো নির্বাচিত হন তিনি। সবশেষ ২০১৪ সালের নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন নির্বাচিত হন।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের পাল্টাপাল্টি কমিটিকে কেন্দ্র করে চলছে আগামী নির্বাচনের প্রার্থীতার প্রতিযোগিতা।

কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন বলেন, এমপি সাহেব নিজের মনগড়া পকেট কমিটি দিয়ে রাখছেন। ওনার সাথে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীর কোন যোগাযোগ নেই।

কুমিল্লা-৩-এর সংসদ সদস্য ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন বলেন, কিছু কমিটি অবৈধভাবে করা হয়েছে। যারা দায়িত্বে আছেন, তারাই এ কমিটি করেছেন। আবার তাদের সুবিধা হচ্ছেনা বলে আবার পরিবর্তন করছেন। আইনের উর্ধ্বে কেউ নয়। এই নীতি অনুসরণ করে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোটগ্রহণ হলে আসনটি আবারো দখলে আসবে বলে মনে করে বিএনপি।

কুমিল্লা মুরাদনগর উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, উন্নয়নের যে ধারা ওনার বলছেন। কায়কোবাদ সাহেব মুরাদ নগরের রাস্তা-ঘাট, স্কুল, কলেজ, মসজিদ মাদরাসাসহ যা করেছেন। এইগুলোর এখন পর্যন্ত মেরামত করতে পারেন নি ওনার। শুধু মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাদেরকে হয়রানি করছেন।

এদিকে, ভোটাররা বলছেন, উন্নয়নে কাজ করবেন এমন ব্যক্তিকে ভোট দেবেন তারা।

ভোটাররা জানান, সৎ নিষ্ঠাবান, যে ব্যক্তি জনগণের জন্য কাজ করবে আগামী সংসদ নির্বাচনে আমরা তাকে ভোট দিবো। সেই সাথে সবার অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চাই।

কুমিল্লা-৩ আসনে ৩ লাখ ৮২ হাজার ৬শ’ ভোটারের মধ্যে এক লাখ ৮৯ হাজার ৭শ’ নারী।-সময় টিভি অনলাইন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত