প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

জনাব ফখরুলের নালিশ রাজনীতি

ওয়ালিউর রহমান : যদি কোনো দেশ জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্র হয় তাহলে সে দেশের যেকোনো রাজনৈতিক সংগঠন জাতিসংঘের হেড কোয়ার্টারে গিয়ে সেখানকার পলিটিক্যাল উইংয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে পারেন। বিএনপি নেতারা তেমনটিই করেছে। তারা এখানে মিথ্যা বলেছে। জাতিসংঘের সেক্রেটারি জেনারেলের সঙ্গে দেখা করার কথা বললেও তা সঠিক নয়। তারা দেখা করেছেন জাতিসংঘের সহকারী সেক্রেটারি মিরোস্লাভ জেনকারের সঙ্গে। তারা মার্কিন যুক্তরাষ্টের স্টেট ডিপার্টমেন্টের ডেস্ক অফিসারদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মিথ্যা অভিযোগ করেছেন। এসব খুবই লজ্জাস্কর। এটা একটা রাজনৈতিক দলের বালখিল্যতার মতো মনে হয়। বেশ কয়েকবছর আগে বেগম জিয়ার নামে একটা আর্টিকেল ওয়াশিংটন টাইমসে লেখা হলো, এখন যদি বলি এটা আধা সত্য, আধা মিথ্যা বলা যাবে না। এটা আসলে সম্পূর্ণই মিথ্যা। মির্জা ফখরুল সাহেব দুই জায়গায় রাজনীতির আশ্রয় নিয়ে মিথ্যা অভিযোগ করার পর এখন আবার বলছেন, তিনি ইউরোপ যাবেন, সেখানে গিয়েও নাকি একই অভিযোগ করবেন।

অভিযোগের রাজনীতি করে কি কোনোভাবে লাভবান হওয়া যায়? মনে হয় না। মির্জা ফখরুল ইসলামরাও কোনো লাভ বা সুবিধা নিতে পারবেন না। কারণ অভিযোগ সংস্কৃতি মোটেও ভালো নয়। এতে হিতে-বিপরীত হয়। ইতিহাস আমাদের সেই শিক্ষাই দেয়।

লেখক : সাবেক রাষ্ট্রদূত ও নিরাপত্তা বিশ্লেষক

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত