প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

আলীকদমে ফের যৌথ অভিযানে পাথর ভাঙ্গানোর মেশিনসহ ১৬ শ্রমিক আটক

মো. নুরুল করিম আরমান, লামা প্রতিনিধি: ফের বান্দরবানের আলীকদম উপজেলায় অবৈধ পাথর উত্তোলনের অভিযোগে ১৬ শ্রমিককে আটক করেছে যৌথ বাহিনী। এসময় একটি পাথর ভাঙ্গার মেশিনও জব্দ করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে আলীকদম উপজেলার চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের কলারঝিরি জবিরাম কারবারী পাড়া থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- আবদুর রশিদ, আবদুল মান্নান, রেজাউল করিম, শফিকুল ইসলাম, মোহাম্মদ আবদুল, মো.জামাল, আবদুর রহমান, মো. ইসহাক, মো.দুলাল, মো.কামাল হোসেন, আবদুল বারেক, রহমআলী, সালাহ উদ্দিন, ওসমান গণি, মো.আজিজ, মো.জোবায়ের। এরা সবাই আলীকদম উপজেলার বাসিন্দা বলে পুলিশকে জানিয়েছেন। তবে এখনো ধরাছোঁয়ারা বাইরে পাথর উত্তোলনের মূল হোতারা।

সূত্র জানায়, কিছু অসাধু পাথর ব্যবসায়ী অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে আলীকদম থানা পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা মঙ্গলবার দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত কলারঝিরি জবিরাম কারবারী পাড়ায় অভিযান চালায়। এসময় পাথর উত্তোলনকালে হাতেনাতে ১৬ শ্রমিক ও একটি পাথর ভাঙ্গানোর মেশিন আটক করা হয়।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে জানায়, দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় ১৬-১৭ জন অসাধু পাথর ব্যবসায়ী প্রশাসনকে তোয়াক্কা না করে প্রায় ২ শতাধিক শ্রমিক দিয়ে মাতামুহুরী সংরক্ষিত বনাঞ্চলসহ বিভিন্ন স্থানের পাহাড় খুঁড়ে গায়ের জোরে বিরামহীনভাবে পাথর উত্তোলন করে আসছে। এতে করে পরিবেশেরও ক্ষতি হচ্ছে।

পাথর ভাঙ্গানোর মেশিনসহ ১৬ শ্রমিক আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে আলীকদম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নাজিমুল হায়দার সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ ও সেনাবাহিনীর যৌথ উদ্যোগে অভিযানে পরিচালনা করা হয়েছে। অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনের দায়ে আটককৃতদের বিরুদ্ধে পরিবেশ সংরক্ষণ আইনে মামলা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত রোববার একই উপজেলার সংরক্ষিত মাতামুহুরী বনাঞ্চল থেকে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনের সময় সেনাবাহিনীর সদস্যরা ১১জন পাথর শ্রমিককে আটক করে। এ নিয়ে পৃথক ২টি অভিযানে ২৭জন পাথর শ্রমিককে আটক করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত