প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

পাক ভারত বাণিজ্য সম্ভাবনা ৩৭ বিলিয়ন ডলার!

কায়কোবাদ মিলন : বিশ্বব্যাংক বলেছে, ভারত পাকিস্তানের মধ্যে ৩৭ বিলিয়ন ডলারের বাণিজ্যের সম্ভাবনা সত্বেও অব্যাহত রাজনৈতিক অস্থিরতা ও স্বাভাবিক বাণিজ্যিক সম্পর্ক না থাকায় উভয়েই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এর ফলে দক্ষিণ এশিয়ার উপর তার ছায়াপাত ফেলেছে।
বিশ্বব্যাংক সোমবার এ সম্পর্কিত প্রতিবেদন প্রকাশ করে। প্রতিবেদনের শিরোনাম ছিল, গ্লাসের অর্ধেকটা খালি জাতীয়। বিশ্বব্যাংক ভারত পাকিস্তানের মধ্যকার বাণিজ্যিক বিকাশে নানা বাধার বিবরণ দিয়ে কোন কোন পণ্য পরিবহনে প্রতিবন্ধকতা রয়েছে তা উল্লেখ করে।

বিশ্বব্যাংক তাদের প্রতিবেদনে বলে, দুই দেশেরই যে স্পর্শকাতর তালিকা রয়েছে সেখানে শুল্ক রেয়াতের কোন বালাই নেই। বিশ্বব্যাংক বলেছে, ভারত পাকিস্তানের মধ্যে স্বাভাবিক বাণিজ্যিক সর্ম্পকের অভাবে আঞ্চলিক সম্পর্ক গভীরতর হতে বাধার সম্মুখীন হচ্ছে। উল্লেখ্য,পাকিস্তান ভারতকে সবচে প্রিয় দেশের মর্যাদা দেয়নি। একই সঙ্গে পাকিস্তান যে বার শতাধিক পণ্যের নেতিবাচক তালিকা করেছে সে সব পণ্য তারা কোন মতেই ভারত থেকে আমদানিতে আগ্রহী নয়। মজার কথা হল এই তালিকার বহু পণ্য ভারত থেকে পাকিস্তানে যায় বটে কিন্তু তা যায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাধ্যমে। অর্থ্যাৎ তৃতীয় একটি দেশের মাধ্যমে।

পাকিস্তান মাত্র ১৩৮টি আইটেম ভারত থেকে আমদানির অনুমতি দিয়ে থাকে। এই পণ্যগুলো অবশ্যই আত্তারি-ওয়াগাহ স্থল সীমান্ত দিয়ে আমদানি করতে হবে। দুই দেশের বাণিজ্য বিপত্তির মূলে রয়েছে এক দেশের ট্রাক অন্য দেশে ঢুকতে পারবে না। পণ্য সীমান্তে ঢেলে দিতে হবে। আর এর ফলে বাণিজ্যের ক্ষেত্রে বেশি ব্যয় হয় তা বলাই বাহূল্য।
বিশ্বব্যাংক সার্ক এবং সাফটাকে শক্তিশালী করার ওপর গুরুত্ব দিয়েছে। -ইয়ন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত