প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আইসিসি সদর দফতরে উপেক্ষিত মোস্তফা কামাল!

স্পোর্টস ডেস্ক : দুবাইয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের সদর দফতরে সোমবার বসেছিল সাংবাদিকদের মেলা। সেখানেই দেখা মিলল এক অস্বাভাবিকতার। বিশ্ব ক্রিকেট সংস্থার সদর দফতরের দেয়ালে এর শীর্ষপদে দায়িত্ব পালন করা ব্যক্তিদের ছবি থাকলেও সেখানে নেই বিসিবি ও আইসিসির সাবেক সভাপতি আ হ ম মোস্তফা কামালের ছবি।

এবারের এশিয়া কাপ হচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। যার একটি ভেন্যু দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম। এর কিছুটা দূরেই অবস্থান আইসিসির সদর দফতরের। এশিয়া কাপে দায়িত্ব পালন করতে আসা বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা থেকে আসা সাংবাদিকদের এদিন আমন্ত্রণ জানায় ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা। এর চলমান কার্যক্রম ও ক্রিকেট বিশ্বায়নের রূপরেখা জানাতেই তাদের ডেকেছিল আইসিসি। সংস্থাটির পুরোটা ঘুরে দেখার সুযোগ হাতছাড়া করেননি সাংবাদিকরা।

লাল রঙয়ের ভবনের ফটক পার হতেই মিডিয়া লেকচার রুম। বড় রুমটার দেয়ালে শোভা পাচ্ছিল আইসিসির শীর্ষপদে দায়িত্ব পালন করা কর্তাব্যক্তিদের ছবি। সেখানে প্রয়াত ডালমিয়া, অ্যাল্যান আইজ্যাকদের ছবি থাকলেও দেখা গেল না সাবেক সভাপিত আ হ ম মোস্তফা কামালের ছবি।

আইসিসির সর্বোচ্চ কর্তাদের ছবির পাশে কেন ফ্রেমবন্দি নেই মোস্তফা কামাল? জানতে চাইলে আইসিসির মিডিয়া ম্যানেজার সামিউল হাসান বলেছেন, ‘তিনি যখন প্রেসিডেন্ট হয়েছেন, তখন সেটা সর্বোচ্চ পদ ছিল না। চেয়ারম্যানের পদটাই ছিল সর্বোচ্চ পদ। তাই মোস্তাফা কামালের ছবি নেই এখানে। চেয়ারম্যান সর্বোচ্চ ক্ষমতার অধিকারী হওয়ায় শুধু তাদের ছবি টাঙানো হয়েছে’

তবে বিসিবির সাবেক সভাপতি উপেক্ষিত থাকলেও আইসিসির সদর দফতরে শোভা পাচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ছবি। ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ী হওয়া মুহূর্তের ছবি টাঙানো আছে দেয়ালে। এছাড়া বিশ্বকাপ, চ্যাম্পিয়নস ট্রফিসহ আইসিসির প্রতিযোগিতার চ্যাম্পিয়নদের ছবির রাখা হয়েছে। পাশাপাশি নানা রকমের ট্রফি, পদক সুসজ্জিত করে রাখা হয়েছে।

এদিন সাংবাদিকদের নিয়ে আয়োজিত সেমিনারের মাধ্যমে ক্রিকেট উন্নয়ন, সংস্থার কার্যক্রম, ম্যাচ ফিক্সিং ইস্যুসহ বেশ কিছু বিষয় ভিডিও চিত্রের মাধ্যমে তুলে ধরে আইসিসি। একই সঙ্গে এসব প্রসঙ্গে ধারাবাহিক বক্তব্য রেখেছেন সংস্থার কর্মকর্তারা। এই সেমিনারে আলোচনার বড় একটা অংশ জুড়ে ছিল ম্যাচ ফিক্সিং ইস্যু। যেখানে জুয়ারিদের প্রশ্রয় না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আইসিসির অ্যান্টি-করাপশন ইউনিটের জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল।

আড়াই ঘণ্টার অনুষ্ঠানের প্রায় দেড় ঘণ্টা সময় ধরে চলল আইসিসির সেমিনার। যেখানে বয়সভিত্তিক ক্রিকেট, ম্যাচের ফরমেট, ফিক্সিং, নারী ক্রিকেটের উন্নয়নের ওপর বিভিন্ন কর্মকাণ্ড দেখানো হয়েছে বড় পর্দায়। ধাপে ধাপে এই বিষয়ের ওপর গণমাধ্যমের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন সঞ্চালক ও বক্তারা।

ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হয়েছে। আইসিসির তথ্য মতে গত ১২ মাসে জুয়াড়িদের প্রস্তাব পেয়েছেন পাঁচ দেশের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক, যাদের মধ্যে চারজনই টেস্ট খেলুড়ে দেশের। -বাংলাট্রিবিউন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত