প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্রেক্সিটের পর দক্ষতার ভিত্তিতে অভিবাসী নেবে ব্রিটেন

সান্দ্রা নন্দিনী: ইউরোপীয় ইউনিয়ন-ইইউ থেকে চূড়ান্তভাবে বেরিয়ে যাওয়ার পর ইইউ-ভুক্তদেশের নাগরিকদের অভিবাসনের ক্ষেত্রে কোন বিশেষ সুবিধা দেয়া হবে না বলে সম্মত হয়েছে ব্রিটিশ কেবিনেট। ইইউ-ভুক্তদেশের নাগরিকরা বিশ্বের অন্যান্য দেশের নাগরিকদের জন্য প্রচলিত অভিবাসননীতির আওতায় পড়বে। মাইগ্রেশন অ্যাডভাইসরি কমিটি-এমএসি’র সুপারিশকৃত নীতিমালা অনুসরণ করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এতে বিরোধীদল লেবারপার্টিরও পূর্ণ সমর্থন ছিলো।

এক সূত্র বিবিসি’কে জানায়, ব্রিটিশ কেবিনেট আসলে সর্বসম্মতিক্রমে জাতীয়তাবাদ বাদ দিয়ে একটি দক্ষতানির্ভর অভিবাসন পদ্ধতিকে সমর্থন দিয়েছে। তবে অনেকেরই ধারণা, ইইউ-ভুক্ত দেশগুলো থেকে আসা অপেক্ষাকৃত কমদক্ষ অভিবাসীদের ব্রিটেনে আসা বন্ধ করলে সেখানকার ব্যবসায়ে ধস নামতে পারে। যেখানে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর থেরেসা মে শুরু থেকেই ব্রেক্সিটের পর ইউরোপের অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ঢল আর ব্রিটেনে ঢুকতে না দেওয়ার পক্ষে নিজের অবস্থান ব্যক্ত করে আসছেন।

আরেক সূত্র জানায়, ব্রিটিশ কেবিনেট মূলত এই বিষয়ে সম্মত হয়েছে যে, যুক্তরাজ্য এরপর থেকে কাজের জন্য বিশ্বের যেকোনও স্থান থেকে আসা অভিবাসনপ্রত্যাশীদের প্রতি বাড়তি কোনও সহানুভূতি দেখাবে না। তবে, সিদ্ধান্তটি এখনও চূড়ান্ত হয়নি বলে কেবিনেটের এক সূত্র বিবিসি’কে নিশ্চিত করেছে। বিবিসি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ