প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৫০ কোটি টাকায় বাংলাদেশি সিনেমা!

বিনোদন ডেস্ক: ৫০ কোটি টাকা বাজেটে বাংলাদেশি সিনেমা! একটু নড়েচড়ে বসার মতোই খবর। কিন্তু এটাই নাকি সত্যি ঘটনা। এর আগে এই বাজেটে বাংলাদেশে কোনো ছবি নির্মিত হয়েছে কি না, তা নিশ্চিত করে কেউ বলতে পারেননি। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার দাবি, তাদের নতুন সিনেমা ‘মাসুদ রানা’, যার ব্যয় ধরা হয়েছে ৫০ কোটি টাকা। প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে এমনটাই দাবি করেছেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজ।

রহস্য উপন্যাস ‘মাসুদ রানা’ নিয়ে ছবি নির্মাণের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে বেশ কিছুদিন আগে। এখন একটি রিয়্যালিটি শোর মাধ্যমে মাসুদ রানা খোঁজার প্রক্রিয়া চলছে। চ্যানেল আইতে এই রিয়্যালিটি শো কিছুদিনের মধ্যে শুরু হবে। মাসুদ রানা খোঁজায় বিচারক হিসেবে কাজ করবেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস ও পূর্ণিমা। কাজী আনোয়ার হোসেনের ‘মাসুদ রানা’ সিরিজ থেকে কয়েকটি চলচ্চিত্র নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। আন্তর্জাতিক মানের চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য হলিউড থেকে পরিচালকও আনা হচ্ছে।

‘মাসুদ রানা’ ছবি নিয়ে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া অন্য রকম পরিকল্পনা করছে। আবদুল আজিজ বলেন, ‘একটু বড় পরিসরেই মাসুদ রানা বানানোর পরিকল্পনা করেছি। ছবিটি নিয়ে আমরা আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশ করতে চাই। যেহেতু আন্তর্জাতিক বাজারে প্রবেশ করার সিনেমা, তাই সিনেমাটি বানাব আন্তর্জাতিক মানের। এর জন্য বাজেটও বড় একটা ব্যাপার। আমরা এখন পর্যন্ত হিসাব করে দেখেছি, ছবিটি নির্মাণের জন্য ৫০ কোটি টাকা লাগবে।’

আবদুল আজিজ জানান, মাসুদ রানা সিরিজের প্রথম পর্ব ‘ধ্বংস পাহাড়’-এর চিত্রনাট্য লিখেছেন নাজিম উদ দৌলা। পরিচালকের বিষয়ে আব্দুল আজিজ বলেন, মাসুদ রানা বিজ্ঞাপনটি তৈরি করেছেন অমিতাভ রেজা এবং খুব ভালো বানিয়েছেন। তাই প্রথমে তাঁকেই পরিচালনার প্রস্তাব দিই। কিন্তু তাঁর কথা হলো এক মিনিটের টিভিসি বানানো আর সম্পূর্ণ সিনেমা তৈরি এক কথা নয় । কিন্তু তিনি মাসুদ রানার সঙ্গে যুক্ত থাকতে চান ।’

মাসুদ রানার সিনেমাটোগ্রাফার থাকবেন পাবলো ডায়াজ, যিনি অনেক বিখ্যাত হলিউড ছবির সিনেমাটোগ্রাফার ছিলেন। অ্যাকশন পরিচালকও হলিউড থেকে নেওয়া হচ্ছে। তাঁর নাম ফিল টান, যিনি ‘ট্রান্সফরমার’, ‘পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান’-এর মতো ছবির অ্যাকশন ডিরেক্টর ছিলেন। টেকনিক্যাল টিম আসবে হলিউড থেকে।

আবদুল আজিজ বলেন, ‘৫০ ভাগ শুটিং হবে হলিউডে। ৪০ ভাগ বাংলাদেশের পার্বত্য জেলাগুলোতে। আর বাকি ১০ ভাগ হবে হবে চীন, থাইল্যান্ড, দুবাইয়ে। মাসুদ রানা ছবিটি ইংরেজি এবং বাংলা ভাষায় মুক্তি দেওয়া হবে । ছবির ইংরেজি নাম “MR9” আর বাংলা নাম হবে “মাসুদ রানা” । পরে অন্য ভাষায় ডাবিং বা সাবটাইটেল হবে।’ সূত্র: প্রথম আলো

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ