প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

পাকিস্তানে অনার কিলিংয়ের শিকার এক জোড়া প্রেমিক প্রেমিকা

শেখ নাঈমা জাবীন : পাকিস্তানের এ্যাটোক জেলায় ১৮ বছর বয়সী এক কিশোরী এবং ২১ বছর বয়সী তার প্রেমিককে শিরচ্ছেদ বা কতল করা হয়েছে। মেয়ের বাবা ও চাচা এই জোড়া খুনের ঘাতক। পরিবারের সম্মান বাঁচাতে এই হত্যাকাণ্ড। এই হত্যাকাণ্ডকে অনার কিলিং বলা হয়।

ছেলে বা মেয়ে পক্ষ যদি অসম সর্ম্পকে জড়িয়ে পড়ে তাহলে পারিবারিক সন্মান বাঁচাতে অবিভাবকদের এক পক্ষ হত্যাকা-ের পথ বেছে নেয়। সোমবার ডন পত্রিকা আলোচ্য অনার কিলিংয়ের খবরটি দিয়েছে।

জানা গেছে, ছেলেটি মেয়ের বাড়িতে দেখা করতে এলে মেয়ের বাবা মাসুদ এবং চাচা ওহেদ তাদের দুজনকে দড়ি দিয়ে বেঁধে ফেলে। অতঃপর ধারালো তলোয়ার দিয়ে তাদের হত্যা করে। পুলিশ সন্দেহভাজন দুজনকে গ্রেফতার করেছে। ময়না তদন্তের জন্য দুটি লাশই জেলা শহরে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, পাকিস্তানে অনার কিলিংয়ের ক্ষেত্রে মেয়েরাই বেশির ভাগ হত্যাকা-ের শিকার হচ্ছে। এজন্য পাকিস্তান ২০১৬ সালে আইন পাশ করলেও সম্মতির অভাবে তা আটকে আছে। নারীবাদি সংগঠনগুলো ওই সময় নতুন আইনকে স্বাগত জানিয়েছিল। ২০১৬ সালের অক্টোবর থেকে ২০১৭ সালের জুন পর্যন্ত ২৮০ জন অনার কিলিং কা-ে নিহত হয়। প্রকৃত সংখ্যা আরো বেশি বলে ধারণা। অনার কিলিংয়ের ক্ষেত্রে বিবাদির যাবজ্জীবন সাজা হওয়ার কথা থাকলেও বিচারকের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। তবে বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই বিবাদি মাফ পেয়ে যায়। -ডন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত