প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘আত্মবিশ্বাসহীনতায় ভুগছে পাক ক্রিকেটাররা’

স্পোর্টস ডেস্ক : ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট দ্বৈরথ যেন এবারের এশিয়া কাপে জমে উঠলো না। এবারের এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে দু’বারের দেখায় দু’বারই অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে পাকিস্তান। গ্রুপ পর্বে হেরেছে ৮ উইকেটে। আর সুপার ফোরে ৯ উইকেটে। যেটি আবার ভারতের সঙ্গে উইকেটের দিক থেকে পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় হার। দলের এই মুহূর্তে পাকিস্তান কোচ মিকি আর্থার মনে করছেন, তার দল এই আত্মবিশ্বাসের সংকটে ভুগছে।

দুবাইয়ে রোববার রাতের ম্যাচে ৯ উইকেটে হারের পর আর্থার বলেছেন, ‘হ্যাঁ, এই মুহূর্তে তারা (সরফরাজ-আমিররা) কিছুটা আত্মবিশ্বাসের সংকটে ভুগছে। ব্যর্থতার ভয় ঢুকে গেছে ড্রেসিংরুমে। বাস্তবতা পরীক্ষা করে দেখতে হবে, ক্রিকেট দল হিসেবে আমরা কোথায় আছি।’

২৩৭ রানের সংগ্রহ নিয়েও ৯ উইকেটের এমন হার নিয়ে পাকিস্তান কোচের মন্তব্য, ‘ভারতের বেশ কিছু ভালো খেলোয়াড় আছে। আমরা যদি তাদের এক ইঞ্চিও ছাড় দিই, আমাদের এর মূল্য দিতে হবে এবং তারা সেটাই করেছে।’

টুর্নামেন্টে ফিল্ডিংটা খুব বাজে হচ্ছে পাকিস্তানের। আগের ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা ক্যাচ ফেলেছিলেন পাঁচটি। ভারতের বিপক্ষেও দুবার রোহিত শর্মার ক্যাচ ফেলেছে তারা। ষষ্ঠ ওভারে শাহিন আফ্রিদির বলে ইমাম উল হক ও ২৮তম ওভারে শাদাব খানের বলে ফখর জামান ক্যাচ ফেলেন।

সমস্যা অবশ্য শুধু ফিল্ডিংয়েই নয়। কোচ বলছেন, ‘ব্যাটিংয়ে স্ট্রাইক রোটেট করাটা আমাদের যথেষ্ট ভালো ছিল না। বোলিংয়ে এই ছেলেদের বিপক্ষে আমাদের দ্রুত উইকেট ফেলা দরকার ছিল। আমরা বেশ কিছু সুযোগ পেয়েছি, কিন্তু সেগুলো কাজে লাগাতে পারিনি।’

পাকিস্তান সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে খেলবে বাংলাদেশের বিপক্ষে। ম্যাচটা এখন টুর্নামেন্টের অলিখিত সেমিফাইনাল হয়ে গেছে। পাকিস্তান হারলে ফাইনাল খেলবে ভারত ও বাংলাদেশ। আর্থারের আশা, তার দল ঘুরে দাঁড়াবে।

ঐ ম্যাচের ভাবনা নিয়ে আর্থার যোগ করেন, ‘এটি এখন সেমিফাইনাল। এই মুহূর্তে গর্ত থেকে বের হওয়ার উপায় খুঁজে বের করতে হবে আমাদের। আমরা এখান থেকে ঘুরে দাঁড়াব। বাঁচা-মরার ম্যাচে অবশ্যই আমাদের সেরাটা দিতে হবে। ছেলেদের ওপর আমার বিশ্বাস আছে।’ ক্রিকইনফো

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত