প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দশ বছরে ভারতে দারিদ্র হ্রাস অর্ধেক, ২৭ কোটি মানুষ দরিদ্র নেই

রাশিদ রিয়াজ: ২০০৫ সাল থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে ভারতে দারিদ্র অর্ধেকে নেমে এসেছে এবং একই সময়ে ২৭ কোটি মানুদ দারিদ্রসীমার বাইরে যেতে পেরেছে। মাল্টিডাইমেনশনাল দারিদ্র সূচক সম্পর্কিত ইউএনডিটি ও অক্সফোড প্রভার্টি এন্ড হিউম্যান ডেভলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভ’এর যৌথ এ রিপোর্টে এধরনের দারিদ্র হ্রাসের সূচকে উৎসাহ ব্যঞ্জক ধরে বলা হচ্ছে বিশ্বে যখন দারিদ্র হ্রাসে লড়াই চলছে তখন এধরনের লড়াইয়ে জয়লাভ ভারতেও সম্ভব। তবে বিশ্বে এখনো দরিদ্র মানুষের সংখ্য ১.৩ বিলিয়ন বা ১’শ কোটিরও বেশি। বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড

রিপোর্টে ১০৪টি দেশের দারিদ্র পরিস্থিতি নিয়ে যে তথ্যে দেখা যায় ১.৩ বিলিয়ন দরিদ্র মানুষের ৪৬ ভাগ রয়েছে চরম দারিদ্র সীমায়। ওই দশ বছরে যে ২৭১ মিলিয়ন মানুষ দারিদ্রসীমা থেকে বের হয়ে আসায় এর হার ৫৫ থেকে নেমেছে ২৮ শতাংশে। ইউএনডিপির প্রশাসক আচিম স্টেইনার বলেন, ভারতই প্রথম দেশ যে দারিদ্রসীমা থেকে এত দ্রুত বের হয়ে আসছে তবে দেশটিতে শিশুদের মাঝে দারিদ্রসীমা এখনো বেশ উঁচু পর্যায়ে। একই সময়ে আফ্রিকার দেশগুলোতে মানুষের গড় আয়ু বেড়েছে ৭ বছর যা দক্ষিণ এশিয়ায় বেড়েছে ৪ বছর। একই সঙ্গে প্রাথমিক শিক্ষায় অন্তর্ভুক্তি হয়েছে ১’শ ভাগ।

রিপোর্টে আরো দেখা যায়, দারিদ্রসীমার মধ্যে যারা রয়েছে তাদের অর্ধেকের বয়স ১৮ বছর। নি¤œ ও মধ্যআয়ের ১০৪টি দেশে ৬৬২ মিলিয়ন শিশু চরম দারিদ্রসীমায় রয়েছে। ৩৫টি দেশের অর্ধেক শিশু দরিদ্র। স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও জীবন মাত্রার মানে এরা সংকটের পাশাপাশি বিশুদ্ধ পানি, পয়নিষ্কাশন সুবিধা, পুষ্টি ও প্রাথমিক শিক্ষার বাইরে রয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ার জনসংখ্যার ৩১ ভাগ অর্থাৎ ৫৪৬ মিলিয়ন মানুষ রয়েছে বহুমাত্রিকভাবে দারিদ্র আর ৩৭ ভাগ অর্থাৎ ২’শ মিলিয়ন রয়েছে চরম সীমার নিচে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত