প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘ভাবছি, আমার এলাকায় নির্বাচনে দাঁড়ালে ড. কামালকে একটা ভোট দেবো’

রবিন আকরাম : জাতীয় ঐক্যের নেতাদের কথায় মুগ্ধ হয়ে লেখক ও সাংবাদিক প্রভাষ আমিন বলেন, ভাবছি, আমার এলাকায় নির্বাচনে দাঁড়ালে ড. কামাল হোসেনকে একটা ভোট দেবো। কিন্তু সমস্যা হলো, আমার একার ভোটে তো তিনি পাস করবেন না। জিততে হলে চাই আমজনতার ভোট।

শনিবার বাংলা ট্রিবিউনে এসব কথা লিখেছেন তিনি।

প্রভাষ আমিন বলেন, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার কোনও কথায় আমি সমালোচনা করার উপাদান পাই না। তারা যা বলেন, সব একদম আমার মনের কথা। তারা গণতন্ত্রের পুনঃপ্রতিষ্ঠা চান, আইনের শাসন চান, সৎ ও যোগ্য প্রার্থীর মনোনয়ন চান, সুষ্ঠু নির্বাচন চান, ক্ষমতার ভারসাম্য চান, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ চান। সত্যি বলছি, সব একদম আমার মনের কথা। শুনতে শুনতে আমি এতটাই মুগ্ধ হয়ে আছি।

‘কিন্তু সমস্যা হলো, আমজনতা এই ভালো ভালো কথাগুলো বুঝতে পারছে না। আমি কিন্তু অনেক দিন ধরেই বলে আসছি, সংখ্যাগরিষ্ঠতার গণতন্ত্রে আমার আস্থা নেই। আমি বিশ্বাস করি ন্যায্যতার গণতন্ত্রে। বঙ্গবন্ধু শিখিয়ে গেছেন, কেউ ন্যায্য কথা বললে, একজন হলেও তার কথা মানতে। কিন্তু সমস্যা হলো, বাংলাদেশে এখনও সংখ্যারিষ্ঠের গণতন্ত্রই প্রতিষ্ঠিত। তাই ড. কামালদের ন্যায্য কথা শোনার লোক নেই, তারা পিছিয়েই থাকেন। তবু কাউকে না কাউকে ন্যায্য কথা বলে যেতেই হবে।’

সিনিয়র এই সাংবাদিক বলেন, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া বিএনপির কাঁধে চেপে আমজনতার কাছে তাদের ন্যায্য কথাগুলো পৌঁছে দিতে চায়। আর বিএনপি চায়, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার ইমেজের সিঁড়ি বেয়ে ক্ষমতায় যেতে বা অন্তত আওয়ামী লীগকে সরাতে।

তিনি বলেন, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার দফা, দাবি, উদ্দেশ্য, লক্ষ্য, ঘোষণা সব অতি সাধু। আমার খালি একটা জায়গায় আপত্তি- টাইমিং। ভালো ভালো মানুষগুলোর তো সারা বছর ন্যায্য কথাগুলো বলার কথা, বলা উচিত। কিন্তু নির্বাচনের তিন মাস আগে কেন তারা ঐক্য করেন! তার মানে তাদেরও খায়েশ আছে নির্বাচন করার, খোয়াব আছে ক্ষমতায় যায়। সেটার জন্য কিন্তু জনগণের ভোট লাগবে; ড. কামাল যেমন চান, সেই গণজাগরণ লাগবে। কিন্তু তিন মাসে ভোট বিপ্লব বা গণজাগরণের স্বপ্ন জেগে দেখা সম্ভব নয়, ঘুমিয়েই দেখতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত