প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজশাহী শহর রক্ষা বাঁধে ধস, ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণা

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজশাহী নগরীর শ্রীরামপুর পুলিশ লাইনের সামনে পদ্মা নদীতে শহর রক্ষা বাঁধে ধস নেমেছে। এ অবস্থায় পানি উন্নয়ন বোর্ড সেখানে লাল পতাকা টানিয়ে এলাকাটি ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে। ভাঙনরোধে সেখানে জিও ব্যাগ ফেলা হয়েছে। অথচ গত বছরই বাঁধটির ১৫১ মিটার এলাকায় সংস্কারকাজ করেছিল পানি উন্নয়ন বোর্ড।

রোববার সন্ধ্যায় সরেজমিনে শ্রীরামপুর এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, পদ্মা নদীর বাঁধের ব্লকগুলো দেবে ধসে গেছে। সেখানে ফেলে রাখা হয়েছে জিও ব্যাগ। সেখানকার ফুচকা বিক্রেতা জসিম উদ্দীন জানান, পদ্মার পানি দ্রুত নিচে নামতে শুরু করে গত শুক্রবার থেকে। হঠাৎ করে পানি নামতে থাকার পর সেখানকার ব্লক দেবে ধসে যায় বাঁধের অনেকটা অংশ। পরে পানি উন্নয়ন বোর্ড সেখানে জিও ব্যাগ ফেলে ভাঙনরোধের চেষ্টা করে।

স্থানীয়রা জানান, ২০১৭ সালে বাঁধটিতে এক কোটি ৪৫ লাখ টাকার সংস্কারকাজ হয়। কাজ শেষ হওয়ার আগেই তাতে ভাঙন ও ধস দেখা দেয়। নিম্নমানের কাজ হওয়ার কারণেই বছর গড়াতে আবার ভাঙন দেখা দিয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে, গত ১৯ থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর তিন দিনে পদ্মার প্রায় ১০ ফুট পানি নেমে গেছে। এত দ্রুত পানি নামাটা অস্বাভাবিক। প্রতিদিন প্রায় ৫০ সেন্টিমিটার পানি কমছে। অস্বাভাবিকভাবে পানি কমতে থাকায় ভাঙন দেখা দিয়েছে।

এ ব্যাপারে রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মকলেছুর রহমান দাবি করেন, সংস্কারকাজ নিম্নমানের হয়নি। পুলিশ লাইনের ভেতরে পুকুর থেকে পানি শুষে আসা এবং দ্রুত পানি নামার কারণেই এই ভাঙন দেখা দিয়েছে। তবে তা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে। সূত্র : সমকাল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ