প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

সাংবাদিকতার স্বাধীনতা খর্ব হচ্ছে

রায় চৌধুরী : সাংবাদিকদের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করবার জন্যই ডিজিটাল আইন অনুমোদন হয়েছে। ডিজিটাল আইন তৈরির মধ্য দিয়ে সাংবাদিকদের স্বাধীনতা খর্ব হচ্ছে। দুর্নীতি অপরাজনীতি এবং অপসংস্কৃতি তৈরি হচ্ছে। সাংবাদিকরা একটি ঘটনা অনুসন্ধানের জন্য গেলে যে পন্থা অবলম্বন করে তা এখন আর করা যাচ্ছে না। ডিজিটাল আইনের মাধ্যমে আমাদেরকে ১৪ বছরের জেলসহ ২৫ লক্ষ টাকা জরিমানার আইনও করা হয়েছে। এ আইনের বিরুদ্ধে আমাদেরকে তৃণমূল পর্যায় থেকে শুরু করে উপর লেবেল পর্যন্ত  বিভিন্নভাবে প্রতিবাদ চালিয়ে যেতে হবে। বর্তমানে প্রতিবাদের একটি সহজ মাধ্যম হচ্ছে সোসাল মিডিয়া।

এ মিডিয়ার মাধ্যমে বিভিন্নভাবে আমাদেরকে ডিজিটাল আইনের বিরুদ্দে প্রতিবাদ করতে  হবে। আমাদের এ প্রতিবাদ কার্যকর হলে সাংবাদিকদের স্বাধীনতা ফিরে আসবে। সোসাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমাদের প্রতিবাদ অনেকে গুজবও বলে থাকেন। কিন্তু যারা আমাদের প্রতিবাদকে গুজব বলবেন, তাদেরকে জন্য বলবো যে স্বাধীনতা হরণের জন্য আমরা প্রতিবাদ করছি এটি কোনভাবেই গুজব নয়। আমাদের জন্য যে আইন হয়েছে আমি আশা করবো, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের আমাদের পাশে থেকে ডিজিটাল আইনের বিবেচনা করবেন এবং আমাদের স্বাধীনতা ফিরিয়ে দিবেন। সংবাদমাধ্যম দেশের ৪র্থ স্তম্ভ ধরা হয়ে থাকে। ৩২ ধারার মাধ্যমে আমাদের স্তম্ভ ভেঙ্গে দেওয়া হচ্ছে বলে আমি মনে করি।  পরিচিতি : সাংবাদিক, দৈনিক জনতা/মতামত গ্রহণ: তাওসিফ মাইমুন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত