প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ওসমান গণির প্রথম জানাজা সম্পন্ন, মরদেহ নিজ বাস ভবনে

শাকিল আহমেদ: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র মো. ওসমান গণির প্রথম জানাজার নামাজ গুলশান আজাদ মসজিদে বাদ যোহর সম্পন্ন হয়েছে। এখন তার মরদেহ রাজধানীর মধ্য বাড্ডায় তার নিজ বাসভবনে নেয়া হয়েছে। গতকাল শনিবার সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৮টায় তিনি মারা যান।

রোববার বেলা ১১টা ৩৭ মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটযোগে তার মরদেহ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। সেখান তার মরদেহ গ্রহণ করেন পরিবারের সদস্যরা। এসময় ডিএনসিসি’র প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলর, ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ও ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। বিমানবন্দর থেকে মেয়রের মরদেহ গুলশান আজাদ মসজিদে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে বাদ জোহর তার প্রথম জানাজা সম্পন্ন হয়।

এসময় উপস্তিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, ঢাকা দক্ষিণের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন, উত্তর সিটির প্যানেলভুক্ত মেয়র মোস্তফা কামাল, ঢাকা ১১ আসন (বাড্ডা) এমপি একেএম রহমতুল্লা ও ওসমান গণির সেজ ছেলে মো.তাপস।
জানাজার পূর্বে মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, ওসমান গণি সাহেবকে আমি কিশোর বয়স থেকে চিনি। তিনি আমার বাবার সাথে রাজনীতি করতেন। তিনি অত্যান্ত সহজ সরল একজন মানুষ ছিলেন।

এমপি একেএম রহমতুল্লা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে তার সাথে আমার সর্ম্পক। তিনি একজন পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ ছিলেন।

প্যানেলভুক্ত মেয়র মোস্তফা কামাল বলেন. তার মৃত্যুর মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের একজন অভিভাবক হারালাম। আল্লাহ যেন তাকে বেহেস্ত নসীব করেন।

জানাজা শেষে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধার জন্য ওসমান গণির মরদেহ ডিএনসিসিতে নেয়া হয়। সেখানে ২০ মিনিট রাখার পরে তার মরদেহ নেয়া হয় মধ্যবাড্ডা তার নিজস্ব বাস ভবনে। বাদ আছর আলাতুনন্নেছা হাইস্কুল মাঠে দ্বিতীয় জানাজা শেষে বনানী কবরস্থানে তার দাফন সম্পন্ন হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ