প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পদ্মার ভাঙনে গৃহহীন ৩ ইউনিয়নের ৬শ’ পরিবার

সাজিয়া আক্তার : পদ্মার চলমান ভাঙনে হুমকির মুখে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার অন্তত তিনটি ইউনিয়ন। স্থানীয়রা বলছেন, পদ্মা এবং আরিয়ালখা নদে ভাঙন দ্রুত ঠেকানো না গেলে কোনো অস্তিত্বই থাকবে না চর জানাজাত, বন্দরখোলা এবং কাঁঠাল বাড়ি ইউনিয়নের। আর এবারের ভাঙনে এই তিন ইউনিয়নেই গৃহহীন হয়েছে ৬শ’ পরিবার।

শিবচর উপজেলার বন্দরখোলা ইউনিয়নের মান্দারকান্দী গ্রামের স্কুলসহ ভাঙনের মুখে পুরো গ্রাম। সেই সাথে রয়েছে বন্দরখোলা বাজার, রাস্তাসহ বহু স্থাপনা এখন ভাঙনের মুখে।

স্থানীয়রা বলছেন, এভাবে ভাঙতে থাকলে হয়তো অস্তিত্বই থাকবে না চর জানাজাত, বন্দরখোলা ও কাঁঠাল বাড়ি এই তিনটি ইউনিয়নের।

চলতি বছরে পদ্মার ভাঙনে নিশ্চিহ্ন হয়েছে এই তিন ইউনিয়নে প্রায় ৬০০ ঘর-বাড়ি, চারটি স্কুল, একটি বাজার, চর জানাজাত ইউনিয়ন পরিষদের ভবন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বহু ব্রিজ কালবার্ট ও পাকা রাস্তা।

নদী ভাঙনের ভয়াবহতার শিকার করে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সহায়তা চেয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

শিবচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান আহমেদ বলেন, আমরা আশা করছি আমাদের আবেদন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা সারা দিবেন। আমরা নিয়মিত মনিটরিং করছি নদী এলাকায় যাতে কোনো ধরনের প্রাণহানী না ঘটে। স্কুলের পাঠদান যাতে কোনোভাবেই যাতে বন্ধ না হয় সেদিকেও আমরা লক্ষ রাখছি।

পদ্মায় শুধু নয় আরিয়ালখা নদের ভাঙনেও বিপদগ্রস্থ শিবচর উপজেলায় সন্যাসীর চর, নীল কি, শিরুয়াইল ও দত্তপাড়া ইউনিয়নের মানুষ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত