প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোহিঙ্গা ‘গণহত্যা’ চালিয়েছে মিয়ানমার: কানাডা

লিহান লিমা: মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর দেশটির সেনাবাহিনীর নির্যাতনের বিরুদ্ধে আইন পাশ করেছে কানাডার পার্লামেন্ট। শুক্রবার কানাডার হাউস অব কমন্স এর ভোটে আইনপ্রণেতারা জাতিসংঘের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনের প্রতিবেদনে সমর্থন দেন।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের নির্যাতন মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ ও এর জন্য মিয়ানমারের সেনাপ্রধানকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। পার্লামেন্টে ভোট প্রদানের পর কানাডার আইনপ্রণেতারা বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন গণহত্যা।’ এই সময় তারা জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে রোহিঙ্গা গণহত্যার বিচার আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে নিশ্চিত করার আহ্বান জানান। ইতোমধ্যেই আইসিসি মিয়ানমারের ৬ জেনারেলের বিরুদ্ধে তদন্ত করা শুরু করেছে। কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড বলেন, ‘এটি নির্মম, ভয়াবহ। এই হত্যার বিচার ও দায়ভার নিতে আন্তর্জাতিক পদক্ষেপ গ্রহণ প্রক্রিয়া আমরা এগিয়ে নেব।’

শুক্রবার জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্টনিও গুতেরেজ মিয়ানমারকে আন্তর্জাতিক আদালতে মুখোমুখি করর প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানান। রোহিঙ্গা সংকটকে বর্তমান বিশ্বের ‘হট টপিক’ উল্লেখ করে জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি বলেন, ‘জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে তিনি বিষয়টি নিয়ে সরব ভূমিকা পালন করছেন। হ্যালি আরো জানান, ‘কিভাবে রোহিঙ্গাদের পুনরায় বার্মায় প্রত্যাবর্সন করা যাবে বিষয়টি আমরা দেখছি। আমি মনে করি না দেশটির সরকার এটি করতে সক্ষম, সেনাবাহিনীও এর দায়িত্ব নেয়নি। এই পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এক সুরে কথা বলতে হবে।’

২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্বিচারে গ্রেপ্তার, হত্যা, গণধর্ষণ ও সহিংসতার শিকার হয়ে সাড়ে ৭ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। এদের ফেরত নেয়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশ-মিয়ানমার চুক্তি স্বাক্ষর হলেও এখন পর্যন্ত কোন রোহিঙ্গা প্রত্যাবসন হয়নি। আল জাজিরা, ইয়ন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত