প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পানি প্লান্টের তারে জড়িয়ে ১ জনের মৃত্যু, ময়না তদন্ত ছাড়াই দাফন সম্পন্ন

এম শিমুল খান, গোপালগঞ্জ: গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোবরা চৌধুরী পাড়ায় একটি পানি প্লান্টের মটরের তারে জড়িয়ে জাকিরুল মোল্লা (৪০) ১ জনের মৃত্যু ঘটনা ঘটেছে। নিহত জাকিরুল মোল্লা মৃত বাকাদ্দেস মোল্লার ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, গোবরা চৌধুরী পাড়ার মৃত আয়ুব আলী চৌধুরীর ছেলে মোবাশ্বের ও তার জামাতা টুঙ্গিপাড়া পাটগ্রাম এলাকার আমিনুর শেখ মিলিত হয়ে নদীতে পানির মটর বসিয়ে গোবরা এলাকায় ফ্রেশ লাইফ পিওর ড্রিংকিং ওয়াটার নামে একটি পানি প্লান্ট তৈরী করে চার মাস যাবত ব্যবসা করে আসছে।

শনিবার সকালে জাকিরুল মোল্লা নদীতে মাছ ধরতে গেলে মটরের সাথে থাকা বিদ্যুতের তার জড়িয়ে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। এ সময় তার সাথে থাকা কাদের মিয়া দৌড়ে পানি কোম্পানির মালিক মোবাশ্বেরকে খবর দিলে তারা মটরের সুইচ বন্ধ করে তাড়াহুড়া করে জাকিরুল মোল্লা লাশ তুলে এনে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাক্তার জাকিরুল মোল্লা কে মৃত ঘোষনা করে।

পরে মোবাশ্বের মৃত জাকিরুল মোল্লার পরিবারকে ৩ লক্ষ টাকার বিনিময়ে কোন রকম ময়না তদন্ত ছাড়াই দাফন করে। এ ছাড়াও সে স্থানীয়দের ম্যানেজ করার জন্য আরো ১ লক্ষ টাকা খরচ করেছে বলে জানা যায়।

মৃত জাকিরুল মোল্লাকে কোন রকম ময়না তদন্ত ছাড়াই দাফনের ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়েছে।
নিহত জাকিরুল মোল্লার ছবি ও নিউজ সংগ্রহ করতে গেলে তার ছেলে রাকিব (২২) সাংবাদিক ও পুলিশের সাথে অসৌজন্য মুলক আচন করে এবং সাংবাদিক ও পুলিশকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে।

মৃত জাকিরুল মোল্লার লাশের ময়না তদন্ত করলে আরো কোন ঘটনা বেরিয়ে আসতে পারে বলে মনে করছেন এলাকাবাসী। মৃত জাকিরুল মোল্লার লাশের ময়না তদন্তের দাবী করেছে এলাকাবাসীসহ অভিজ্ঞ মহল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ