প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

তরিকুল ইসলাম : বৃহস্পতিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই দিনে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে তার। অধিবেশনে বরাবরের মত বাংলায় ভাষণ প্রদানসহ রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের প্রতি চাপ বাড়ানোর আহবান জানাবে। এ ছাড়া রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের বেশ কিছু সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব তুলে ধরবেন শেখ হাসিনা।

রোহিঙ্গাদের প্রতি মানবতা দেখানোয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবারের জাতিসংঘ সফরে দু’টি পুরস্কার গ্রহণ করবেন। একই দিনে তাকে ইন্টার প্রেস সার্ভিস নিউজ এজেন্সি এবং গ্লোবাল হোপ কোয়ালিশন পুরুস্কার প্রদান করা হবে। ইতোপূর্বে জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান, সাবেক মহাসচিব বুট্রোস বুট্রোস ঘালি এবং ফিনল্যান্ডের প্রেসিডেন্ট মার্টি আটিসারি এ সন্মাননা পেয়েছন।

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের বছর পেরিয়ে গেলেও প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া নিয়ে দ্বিপক্ষীয় ও তৃপক্ষীয় করা কোনো চুক্তি মানছেনা মিয়ানমার। সংকটের শুরু থেকে দেশটির একের পর এক মিথ্যাচার আর বাংলাদেশকে দায়ী করার মধ্যে দিয়েই সময় ক্ষেপন করছে। মানবিক এ সংকট দক্ষিণ এশিয়া ও বৈশ্বিক নিরাপত্তায় হুমকি তৈরি করতে পারে এমন উদ্বেগের জায়গা থেকে আন্তর্জাতিক ফোরাম ও দেশগুলো সরব ছিলো জানিয়ে ঢাকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, জাতিসংঘের ৭৩তম সাধারণ অধিবেশেনে এবার রোহিঙ্গাদের ভাগ্য পরিবর্তনে একাট্টা হতে পারেন বিশ্ব নেতারা।

দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা বলছেন, সংকটের পর বিভিন্ন দেশ ও সংস্থাগুলো এবারই প্রথম বড় কোনো প্লাটফর্মে এক সঙ্গে বসছেন। নিরাপত্তার হুমকি থাকায় সঙ্গত কারনেই রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে বিশ্ব নেতারা সেখানে এর সঠিক উপায় খুঁজে বের করার তাগিদ অনুভব করছেন। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফ্রান্স ও মালয়েশিয়া সংকট তুলে ধরার প্রস্ততি নিয়েছে। এছাড়া তুরস্ক, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, আলজেরিয়া, মরক্কো, সুদানসহ বেশ কয়েকটি দেশ তাদের প্রস্তাবনা অধিবেশনে তুলে ধরে সমাধানের প্রত্যাশা করছে। সংকট মোকাবেলার গুরুত্বটা এবার চূড়ান্ত রুপ নিবে। অধিবেশনে দেয়া বিশ্বনেতাদের বক্তৃতা ছাড়াও সাইড লাইনে রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে আলোচনা, বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইস্যুটির টেকসই সমাধানে বিশ্বনেতাদের সহায়তা চাইবেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত