প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

খালেদার আসনে আওয়ামী লীগের ব্যাপক তোড়জোড়

ডেস্ক রিপোর্ট: একাদশ সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে ফেনী-১ (পরশুরাম-ফুলগাজী-ছাগলনাইয়া) আসনে সংসদ সদস্য মনোনয়ন প্রত্যাশী, দলীয় নেতাকর্মী, সমর্থক ছাড়াও সাধারণ মানুষের মাঝে নির্বাচনী আমেজ শুরু হয়েছে। ফেনী জেলার তিনটি আসনের মধ্যে সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ আসন ফেনী-১। কারা প্রার্থী হতে পারেন, কোন কোন দল অংশ নেবে, দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ক্ষেত্রে কার সম্ভাবনা বেশি এসবই এখন আলোচ্য বিষয় হয়ে উঠেছে সব জায়গাতে।
আওয়ামী লীগের দলীয় পরিমণ্ডলে প্রার্থিতা পাওয়ার জন্য চলছে জোর লবিং ও তদবির। আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা সামাজিক, দলীয় ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে প্রচারণায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। এদিকে পাঁচবার বিপুল ভোটের ব্যবধানে ফেনী-১ থেকে বিজয়ী হয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।
ফেনী জেলা বেগম জিয়ার জন্মভূমি হওয়ার কারণে ফেনীবাসীর কাছে তার গ্রহণযোগ্যতা বরাবরই একটু বেশি। তাইতো সবসময় নাড়ির টানে নিজের জন্মস্থান থেকে বারবার প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি। কিন্তু তাকে কারাগারে রেখে একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপি যাবে কিনা কিংবা কারাবন্দী খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে পারবেন কিনা এ নিয়ে অনিশ্চয়তায় আছে দলের নেতাকর্মীরা।
এদিকে জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু তাহের বলেন, নেত্রীর কারামুক্তি, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার , বর্তমান সংসদ ভেঙে দিয়ে পদত্যাগ, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার গঠন, মেরুদণ্ডহীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে সরিয়ে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন, ম্যাজিস্ট্রেটকে ক্ষমতা দিয়ে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হলেই বিএনপি নির্বাচনে যাবে।
পরশুরাম বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র আবু তালেব বলেন, নেত্রীর কারামুক্তি না হওয়া পর্যন্ত দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিবে না।আর ফেনী-১ আসনে নেত্রী যাকে মনোনয়ন দিবেন আমরা তার পক্ষে কাজ করব।
অন্যদিকে বর্তমানে আসনটি ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন জোটের শরিক জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ-ইনু) দখলে আছে। আগামী নির্বাচনে প্রার্থী পরিবর্তন চায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীরা। তারা এই আসনে দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন চায়। অন্যদিকে সংসদ সদস্য শিরীন আক্তার বলেন, মহাজোট থেকে আমি আবার মনোনয়ন পেলে নির্বাচন করবো।
এদিকে জেলা জাসদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাজী আবদুল বারী জানান, শিরীন আক্তার ১৪ দলীয় জোটের এমপি হিসেবে একজন শক্তিশালী প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করবেন।
এমপি গ্রামে অবকাঠামো উন্নয়নসহ মুহুরী ও মহামায়া ব্রিজের নির্মাণ কাজ চলমান অবস্থায় মুহুরী ও কহুয়া নদীর বাঁধ ভাঙনের স্থায়ীভাবে নির্মাণের প্রকল্পের কাজ হাতে নিয়েছেন। এছাড়া বাড়ি বাড়ি গিয়ে উঠান বৈঠক করে সরকারের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরছেন।
উল্লেখ্য, ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১ সালে এ আসন থেকে খালেদা জিয়া একটানা এমপি নির্বাচিত হন।তবে ২০০১ সালের উপ-নির্বাচনে তিনি এ আসনটি তার ছোট ভাই প্রয়াত সাঈদ এস্কান্দারকে ছেড়ে দেন। পরে ২০০৮ সালেও খালেদা জিয়া এ আসনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালে বিএনপি ওই নির্বাচনে অংশ না নেওয়ায় এ আসনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোটের প্রার্থী জাসদ (ইনু) নেত্রী শিরীন আক্তারকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংসদ সদস্য হন। দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ২০১৪ সালের নির্বাচনে প্রথমে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পান দলের জেলা শাখার সহ-সভাপতি খায়রুল বাশার তপন। কিন্তু পরে জোটের শরিকদের আসন ছেড়ে দিলে তাকে বাদ দিয়ে জাসদের কেন্দ্রীয় নেত্রী শিরীন আক্তারকে মনোনয়ন দেয়া হয়।
ফুলগাজীর ছয় ইউনিয়ন, পরশুরামের এক পৌরসভা ও পাঁচ ইউনিয়ন, ছাগলনাইয়ার এক পৌরসভা ও পাঁচ ইউনিয়ন নিয়ে আসনটি গঠিত। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী, ফেনী জেলা ফুলগাজী উপজেলার কৃতি সন্তান বিশিষ্ট শিল্পপতি ও দানবীর আলহাজ শেখ আবদুল্লাহ। জানা যায়, পেশাদারিত্বের শীর্ষ পর্যায়ে উন্নতির কারণে স্ব-পেশার লোকদের অনুরোধে ব্যবসায়ী সংগঠনে নাম লেখান তিনি। অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেলস এজেন্সি বাংলাদেশ (আটাবের) পরপর দু’বার মহাসচিবের দায়িত্ব সফলতার সঙ্গে সম্পন্ন করেন শেখ আবদুল্লাহ। এরই ধারাবাহিকতায় হজ এজেন্সি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ( হাব’র) সফল মহাসচিব’র দায়িত্ব পালন করেছেন দু’বার। একজন দক্ষ সংগঠক হিসাবে শেখ আবদুল্লাহ জাতীয় পর্যায়ে ব্যাপক প্রশংসিত হন। তিনি ঢাকাস্থ ফেনীবাসীর ঐতিহ্যবাহী সংগঠন ফেনী সমিতির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ঢাকাস্থ ফুলগাজী সমিতিরও সভাপতি’র দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। এছাড়াও তিনি অসংখ্য সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছেন বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়।
স্থানীয়রা জানান, আলহাজ শেখ আবদুল্লা’র উছিলায় সক্রিয় আছে বহু এতিমখানা, মাদরাসা ও মসজিদ। ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী সদস্য শেখ আবদুল্লাহ কর্মী বান্ধব ব্যক্তি হিসাবে নেতা-কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে বলে স্থানীয় নেতাকর্মীরা জানান।
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফেনী-১ আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী শেখ আবদুল্লাহ। শেখ আবদুল্লাহ আরও বলেন, আমাদের নেতা আলাউদ্দিন চৌধুরী নাসিম প্রার্থী হলে আমি তার পক্ষে কাজ করবো।
আওয়ামী লীগের সূত্র মতে, জোটের প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলেও জাসদ (ইনুর) সাধারণ সম্পাদক শিরীন আক্তারের সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতাদের দূরত্ব রয়েছে। ছাগলনাইয়ায় দলের একাধিক অনুষ্ঠানে- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল বলেন, এমপি আমাদের দলের কারও সঙ্গে কোনও যোগাযোগ রাখেন না। তিনি আমাদের কোনও খোঁজখবরও নেন না। এসব সমাবেশে দলের নেতারা এবার শিরীন আক্তারের পরিবর্তে মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেলকে দলীয় মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানান। ছাগলনাইয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সামছুদ্দিন ভুলু মজুমদার বলেন, আমাদের দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে স্থানীয় এমপির অসহযোগিতার কথা তুলে ধরেছেন বলে সোহেল চৌধুরী জানান । তিনি আরও বলেন, সবার সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করলে একদিকে যেমন মানুষের মহাজোটের প্রতি আস্থা বাড়বে, অন্যদিকে সরকারেরও সুনাম বাড়বে। তিনি এ আসনে প্রার্থী পরিবর্তনের দাবি করেন।
সোহেল বলেন, ফেনীর আওয়ামী লীগের অভিভাবক আলাউদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী নাসিম ও আধুনিক ফেনীর রূপকার নিজাম উদ্দিন হাজারীর নেতৃত্বে যাকে ফেনী-১ আসনে মনোনয়ন দেওয়া হবে তিনি তার পক্ষে কাজ করবেন। সেক্ষেত্রে আলাউদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী নাসিমের পর তিনি নিজেকে প্রার্থী হিসেবে যোগ্য মনে করেন। তবে এ আসনে যদি মহাজোট থেকেও প্রার্থী দেয়া হয় তাহলেও দলীয় নির্দেশে তার পক্ষে কাজ করবেন তিনি। তবে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এ আসনে দলীয় প্রার্থী চায়।
একাধিক সূত্রে জানা গেছে, বিগত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে ফেনী আওয়ামী লীগে প্রভাবশালী ভূমিকায় আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক প্রটোকল অফিসার আলাউদ্দিন আহম্মেদ চৌধুরী নাসিম। দলের একটি অংশ চায় তিনি এই আসনে প্রার্থী হন। তবে তিনি নির্বাচন করার বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোথাও কিছু বলেননি। জাতীয় পার্টি থেকে দলীয় প্রধান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের বিশেষ উপদেষ্টা নাজমা আক্তার প্রার্থী হতে পারেন বলে জানা গেছে। জাতীয় পার্টি থেকে পদত্যাগী কেন্দ্রীয় নেতা ও বর্তমানে ট্রুথ পার্টির কেন্দ্রীয় মহাসচিব এ টি এম গোলাম মাওলা চৌধুরীও এই আসনে নির্বাচন করতে চান বলে বিভিন্ন মাধ্যমে জানিয়েছেন। সূত্র: আরটিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত