প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বছরে ৪’শ কোটি ডলারের খাদ্য অপচয় রোধে আমিরাতের নানা উদ্যোগ

রাশিদ রিয়াজ: খাদ্য অপচয় কমিয়ে আনতে তা বিলিয়ে দেয়া ছাড়াও কৃষি জমিতে কম্পোস্ট সার তৈরি সহ নানা ধরনের উদ্যোগ নিয়েছে আমিরাত। অতীতের চেয়ে খাদ্য অপচয় কমলেও এখনো বছরে ৪.১ বিলিয়ন ডলারের খাদ্য অপচয় হয় আমিরাতে। দেশটির পাঁচ তারকা হোটেল থেকে শুরু করে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে এধরনের খাদ্য অপচয় রোধে রীতিমত সামাজিক আন্দোলন শুরু করেছে আমিরাত। আবুধাবি সেন্টার ফর ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট ‘তাদুইর’ বলছে খাদ্য অপচয়ের অর্ধেকই আমিরাতের রাজধানীতে হয়। আরব বিজনেস

আমিরাতের বিভিন্ন হোটেলে খাদ্য অপচয় কমাতে প্লাস্টিক ব্যবহার কমানো হয়েছে। জুমেরাহ রেস্টুরেন্ট গ্রুপ তাজা ও সতেজ খাদ্য পণ্য ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে যাতে অপচয়ের পরিমাণ শুরুতে কম হয়। অব্যবহৃত খাবার কৃষি জমিতে নিয়ে কম্পোস্ট সার তৈরির জন্যে পরিবহন ব্যবস্থা গড়ে তোলা হচ্ছে। ব্যবস্থা করা হচ্ছে নিজস্ব কৃষি জমির। কেনা হয়েছে ওয়েস্ট রিসাইক্লিং মেশিন। এর ফলে খাবারের বর্জ্যরে ওজন ৮০ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস করা সম্ভব হয়েছে। এর পর তা কম্পোস্ট করতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে সুপরিচিত বুর্জ খালিফা ভবনের আশেপাশের এলাকায়। গত জুন পর্যন্ত বিভিন্ন হোটেলের বুফে, স্টাফ ক্যান্টিন, বলরুমে বিভিন্ন অনুষ্ঠান থেকে ৭৭ লাখ ৯৩০ কেজি খাদ্যবর্জ্য এসেছে। গত তিন বছর আগে এর পরিমাণ ছিল কয়েকগুণ বেশি। একই সময় এ খাদ্যবর্জ্য থেকে ২ হাজার ৭১৭ কেজি কম্পোস্ট তৈরি করা হয়েছে। পাশাপাশি গ্রহণ করা হয়েছে ‘গ্রিন হোটেল’ প্রকল্প নেয়া হয়েছে খাদ্যবর্জ্যরে রিসাইক্লিং আরো বৃদ্ধি করার জন্যে। ২০২১ সাল নাগাদ ৭৫ ভাগ খাদ্যবর্জ্য রিসাইক্লিং করা হবে। ইতোমধ্যে গত ১৮ মাসে খাদ্যবর্জ্য রিসাইক্লিং বৃদ্ধি পেয়েছে ১২০ শতাংশ। প্রতিমাসে ১৩০ টন খাদ্যবর্জ্য থেকে ৬০ টন রিসাইক্লিং করা হচ্ছে। একই সঙ্গে খাবার বর্জ্যে পরিণত হবার আগেই তা বিভিন্ন দাতব্য প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে দান করে দেয়া হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ