প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

adv 468x65

পশ্চিমবঙ্গে বাংলাদেশি হিন্দুদের ‘আমন্ত্রণ’ জানাবে বিজেপি

মাছুম বিল্লাহ : ভারতের আসামে ন্যাশনাল রেজিস্টার অব সিটিজেন্সে (এনআরসি) ৪০ লাখ মানুষকে সন্দেহভাজন ‘বিদেশী’ হিসেবে চিহ্নিত করার পর দেশটির ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ এবং সাধারণ সম্পাদক রাম মাধব দেশটিতে বসবাসরত ‘বাংলাদেশিদের’ বহিস্কারের ঘোষণা দিয়েছেন। এ কারণে বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দু নাগরিকদের মধ্যে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে দেশটির পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য বিজেপি কেন্দ্রীয়ভাবে একটি আইনের প্রস্তাব দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে, যার মাধ্যমে ওই রাজ্যে বসবাসরত বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দু অভিবাসীদের ভারতের নাগরিকত্ব দেয়া হবে। এছাড়া বিজেপির রাজনৈতিক কর্মসূচির অধীনে বাংলাদেশের সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদেরকে ভারতে এসে নাগরিকত্ব গ্রহণের জন্য ‘আমন্ত্রণ’ও জানানো হবে। ২০১৯ সালের গ্রীষ্মে অনুষ্ঠিতব্য পার্লামেন্টারি নির্বাচনের এক বছরের কম সময় আগে এই কর্মসূচির কথা জানানো হলো।

একটি সংবাদ মাধ্যমকে  বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শাখার সভাপতি দিলিপ ঘোষ বলেছেন, ‘ভোটারদের কাছে এই গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুটি ব্যাখ্যা করে পুরো রাজ্যে পাঁচ লাখ লিফলেট বিতরণ করা হবে। চলতি মাসের শেষ দিকে এই কর্মসূচি শুরু হবে।’

তিনি বলেন,  ‘বিজেপির জন্য পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হলো “সিটিজেনশিপ (সংশোধনী) বিল, যেটা দিয়ে আমরা হিন্দু অভিবাসীদের টার্গেট করেছি। হিন্দু অভিবাসীদের সমর্থন নেয়ার চেষ্টা করবে যারা এরই মধ্যে ওই রাজ্যে বসবাস করছে। একই সাথে বাংলাদেশের সংখ্যালঘু গ্রুপগুলোর সমর্থন পাওয়ারও চেষ্টা করবো।

দিলিপ ঘোষ আরও বলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গে যে সব মুসলিম অভিবাসী বাস করছে, তাদের নিয়ে আমাদের কোন উদ্বেগ নেই। তাছাড়া বাংলাদেশের যে সব হিন্দু অভিবাসী এই রাজ্যে এসে বাস করছে, তাদেরকে আমাদের স্বাগত জানাবো।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে আগামী ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে প্রধান রাজনৈতিক দলগুলো থেকে অধিক সংখ্যক হিন্দু প্রতিনিধি দেয়ার জন্য একটা ভূমিকা রাখছে আরএসএস।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত