প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বে জ্বালানী চাহিদা প্রতিদিন ১০ কোটি ব্যারেল হবে

নূর মাজিদ: অপরিশোধিত জ্বালানী তেলের বৈশ্বিক চাহিদা আগামী তিন মাসের মাঝেই দৈনিক ১০ কোটি ব্যারেলে গিয়ে দাঁড়াবে। ফলে জ্বালানী তেলের মূল্যবৃদ্ধির দৃঢ় সম্ভাবনা রয়েছে, জানিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল এনার্জি এজেন্সি (আইইএ)। সংস্থাটি জানায়, তেলের বাড়তি দর উদীয়মান অর্থনীতির দেশগুলোর উৎপাদন, অর্থনৈতিক বিকাশের গতি কমানোসহ  নিত্য-প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে সক্রিয় ভূমিকা রাখবে।

প্যারিস ভিত্তিক এই সংস্থাটি আরো জানায়, চলতি বছর বিশ্বজুড়ে অপরিশোধিত জ্বালানীর চাহিদা দৈনিক ১৪ লাখ ব্যারেল বেড়েছে। ২০১৯ সালে যা ১৫ লাখ ব্যারেল পর্যন্ত বাড়বে। পশ্চিমা সরকারগুলোর প্রতি সতর্কবার্তা দিয়ে আইইএ প্রতিবেদন জানায়, আন্তর্জাতিক বাজারে ব্রেণ্ট ক্রুডের দর ৭০ থেকে ৮০ ডলারের মধ্যে ওঠানামা জ্বালানী চাহিদা বাড়ায় চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হবে। বিশেষ করে, ইরানের তেল রপ্তানির ওপর দেয়া মার্কিন নিষেধাজ্ঞা চলতি বছরের নভেম্বর থেকে কার্যকর করা হবে। ইতোমধ্যেই, এই ঘটনায় বিশ্ব বাজারে তেলের সরবরাহ বিগত দুই বছরের তুলনায় অনেক কমে গেছে।

এছাড়াও, ওইসিডি তালিকাভুক্ত শিল্পন্নোত দেশগুলোর জ্বালানী চাহিদাও বাড়ছে। বিশেষ করে ভারত এবং চীনের জ্বালানী চাহিদা উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বাড়ছে। চলতি বছর দেশদুটির জ্বালানী তেলের চাহিদা দৈনিক ৫ কোটি ১৬ লাখ ব্যারেল গিয়ে দাঁড়াবে। যা ২০১৯ সালে হবে দৈনিক ৫ কোটি ২৮ লাখ ব্যারেল।

সংস্থাটি জানায়, চলতি বছরের শেষ প্রান্তিকে দৈনিক অপরিশোধিত জ্বালানীর চাহিদা হবে ১০ কোটি ৩ লাখ ব্যারেল। তবে ২০১৯ সালের প্রথম প্রান্তিকে দৈনিক ৯ কোটি ৯৩ লাখ জ্বালানী তেলের চাহিদা থাকবে। কমোডিটি অনলাইন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ