প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আরব আমিরাতে এশিয়া কাপ শনিবার শুরু -
লঙ্কানদের হারাতে সেরাটাই খেলবে মাশরাফিরা

এল আর বাদল : ১৫ সেপ্টেম্বর শনিবার এশিয়া কাপের চৌদ্দতম আসর বসছে আরব আমিরাতে। ছয়টি দেশের অংশগ্রহণে এবারের আসরে কোন দলটি সেরা, তা জানতে ২৮ সেপ্টেম্বর ফাইনাল অবদি অপেক্ষা করতে হবে। তবে ক্রিকেট বিশ্লষকরা ভারত আর পাকিস্তানকে এগিয়ে রাখছেন ফাইনাল মোকাবিলায়।

গত ১৩টি আসরে ভারত ৬বার, শ্রীলঙ্কা ৫ বার আর পাকিস্তান ২ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। বাংলাদেশ দু’দুবার শিরোপা ছুঁইছুঁই করেও আর হল না। রানার্সআপের তকমা নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় লাল-সবুজদের।

এশিয়া কাপে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। দুবাই স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে ৫টায় খেলা শুরু হবে। এদিন শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে কতোটা নিজেদের মেলে ধরতে পারবে মাশরাফিরা, সেটাই দেখার বিষয়। স্বপ্ন দেখতে কে না ভালোবাসে, দলনেতা মাশরাফি, সাকিব ও তামিম ইকবাল এবার এশিয়া জয়ের স্বপ্নের কথা জানিয়েছেন বেশ কিছুদিন ধরে।

২০১২ সালে এবং ২০১৬ সালে টি-২০ এশিয়া কাপের ফাইনালে হেরে রানার্সআপ হয়েছিলো বাংলাদেশ। সুতরাং এবারের আসরে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্ন দেখতেই পারে মাশরাফিবাহিনী। এই আসরে বাংলাদেশের বড় সমস্য হলো একাধিক খেলোয়াড় চোটাক্রান্ত থাকা। সাকিব-তামিমের মতো গুরুত্বপূর্ণ সদস্যরাও। এরপরও আত্মবিশ্বাসী এক বাংলাদেশ দলকেই এশিয়া কাপে দেখা যাবে বলে মনে করেন টাইগার নেতা মাশরাফি বিন মোর্তুজা। ম্যাচ বাই ম্যাচ জয়ের লক্ষ্যে মাঠে নেমে এশিয়ার সেরা হওয়ার স্বপ্নের কথাই বললেন তিনি।

শনিবার উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নামবে বাংলাদেশের ওরা এগার জন। টুর্নামেন্টের আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে টেস্টে বিধ্বস্ত হলেও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে দারুণ ফর্মে মাশরাফীবাহিনী। সেই আত্মবিশ্বাস কাজে লাগিয়ে এশিয়া কাপে দারুণ কিছু দেখানোর প্রত্যাশা মাশরাফির কণ্ঠে।

এদিকে ক্রিকইনফো টাইগার দলের সহ অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচ জয়ে তিনি ভীষণ আত্মবিশ্বাসী। সাকিব বলেছেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আমরা ভালো একটি সিরিজ কাটিয়েছি।

বিশেষ করে ওয়ানডে ও টি টোয়েন্টিতে। আমরা সেই আত্মবিশ্বাস নিয়েই এশিয়া কাপে নামতে চাই। এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের টুইটারে উঠে এসেছে সাকিবের এমন বক্তব্য। এবারের আসরে বাংলাদেশ ‘বি’ গ্রুপে শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে খেলবে। ‘এ’ গ্রুপে লড়বে ভারত, পাকিস্তান ও হংকং।