প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হুমকি দিয়ে গোপনে পাকিস্তানের গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করে সেনাবাহিনী

লিহান লিমা: ভয় ও আতঙ্ক ছড়িয়ে, বল প্রয়োগ করে গোপনে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতাকে রুদ্ধ করে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। বুধবার সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা বিষয়ক গোষ্ঠি ‘কমিটি অব প্রোটেক্ট জার্নালিস্ট’ (সিপিজি) এর প্রকাশিত প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে আসে।

সিপিজি জানায়, সেনাবাহিনী গণমাধ্যম ও সাংবাদিকদের কণ্ঠরোধ করতে ‘লাইন অব কন্ট্রোল’ প্রতিষ্ঠা করেছে। এই অবস্থার সমালোচকরা হুমকি, হামলা অথবা গ্রেপ্তারের শিকার হন। প্রতিবেদনে সিপিজি জানায়, ‘সেনাবাহিনী গোপনে অথচ সরবভাবে প্রতিবেদন প্রকাশে বিধি-নিষেধ আরোপ করে। গত কয়েক বছরে পাকিস্তানে অনেক সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। অনেক প্রতিবেদক সেনাবাহিনীকে নিয়ে সমালোচনামূলক প্রতিবেদন লেখার পর হামলার শিকার হয়েছেন।’

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, পাকিস্তানের সেনাবাহিনী রাজনীতি অথবা গণমাধ্যমে হস্তক্ষেপ করার বিষয়টি অস্বীকার করে আসছে। এই প্রতিবেদনের বিষয়েও সেনাবাহিনীর কাছ থেকে কোন উত্তর পাওয়া যায়নি। দেশটির তথ্যমন্ত্রী ফুয়াদ চৌধুরি রয়টার্সকে বলেন, কোন গণমাধ্যমই হুমকির বিষয়ে অভিযোগ করেনি। তবে যদি এমনটি ঘটে থাকে তবে তারা তদন্ত করবেন।

সিপিজি পাকিস্তানের অনেক সাংবাদিক ও সংবাদ সংস্থার সঙ্গে কথা বলে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এর মধ্যে রয়েছে দেশটির সবচেয়ে জনপ্রিয় নিউজ চ্যানেল জিও নিউজ। এপ্রিলের সাধারণ নির্বাচনে দেশটির ৮০ভাগ বাড়িতে জিও এর ক্যাবল সিগন্যাল বন্ধ করে দেয়া হয়। এই সময় জিও’র দুইটি সূত্র রয়টার্সকে জানায়, সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে সরিয়ে দেয়ার সঙ্গে সেনাবাহিনীর সম্পৃক্ততা রয়েছে এমন প্রতিবেদন প্রকাশ করায় সেনাবাহিনী ক্ষুব্ধ ছিল। একইভাবে পাকিস্তানের জনপ্রিয় ইংরেজি দৈনিক ডন এর সার্কুলেশন কয়েকটি স্থানে বন্ধ করে দেয়া হয়।রয়টার্স

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ