প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জমজমাট গো-খাদ্য ব্যবসা

রিয়াজ হোসেন : পবিত্র ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে বিক্রির ধুম লেগেছে রাজধানীর গো-খাদ্য কেনার। রাজধানীর বিভিন্ন পশুরহাটসহ বাজারের আশেপাশেই গো-খাদ্য নিয়ে বসেছে মৌসুমী ব্যবসায়ীরা।

কাঁচাঘাস, শুকনো খড়, খৈল-ভুষি থেকে শুরু করে কাঁঠালপাতা মিলছে এসব বাজারে। মঙ্গলবার রাজধানীর মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি, পান্থপথ, কাওরান বাজার , কমলাপুর, খিলগাঁও রেলগেট, বনশ্রী, আফতাব নগর, নতুন বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এ চিত্র দেখা যায়।

ফল ব্যবসায়ী, সবজি বিক্রেতা, ভ্যানচালকসহ নানা পেশার মানুষ বাড়তি লাভের আশায় সপ্তাহখানেকের জন্য বিক্রি করছেন কোরবানির নানা ধরনের সামগ্রী।

কাওরান বাজারে গো-খাদ্য বিক্রেতা মোশাররফ জানান, আঁটি প্রতি কাঁচাঘাস ২০-৪০ টাকা, শুকনো খড় ২০-৩০ টাকা , কাঁঠালপাতা ৩০-৫০ টাকা বিক্রি হচ্ছে। আর গরুর ভুষি কেজিপ্রতি ৫০-৬০ টাকা, খৈল ৮০, তুষ ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মোহাম্মদপুর বাস স্টেশনে কাঁচাঘাস ও শুকনো খড় বিক্রেতা হানিফ মিয়ার সাথে কথা হয় সঙ্গে কথা হয়। তিনি বলেন, ভেনে করে সবজি বিক্রয় করতাম । আজ কয়েকদিন ধরে এ ব্যবসা শুরু করেছি। তবে আজ বেশ ভালই বিক্রি হচ্ছে। মূলত ব্যবসা হবে আজ ও আগামীকাল। কুরবানি হয়ে গেলে আবার সবজি বিক্রি করমু।

ধানমন্ডি অপর খড় বিক্রেতা কামাল হোসেন বলেন, কয়েকজন সবজি বিক্রেতা মিলে ব্যবসা শুরু করছি। পান্থপথের গো-খাদ্য ব্যাবসায়ী মুসা বলেন, অল্প পুঁজিতে ভালই ব্যবসা হচ্ছে। গরুর পাশাপাশি ছাগলের খাদ্যেরও রয়েছে ব্যাপক চাহিদা। ফুটপাতের অনেক শিশু ১০ থেকে ২০ টাকা আঁটি কাঁঠালপাতা বিক্রি করছে।

আগামীকাল বুধবার জিলহজ মাসের ১০ তারিখ ঈদুল আজহা। এদিন মুসলিম ধর্মাবলম্বীরা মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনে পশু কুরবানি করবেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত