প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয় হোক ছেলে বা মেয়ে’

মেহেদী হাসান: পত্রিকার খবরে দেখা গেছে যে ছাত্রীকে ডিবি নিয়ে গেছে সে ফেসবুকে রাষ্ট্র বিরোধী বক্তব্য দিয়েছে। কেউ আইনের উর্ধ্বে নয়, হোক সে ছেলে বা মেয়ে। কেউ যদি রাষ্ট্র বিরোধী সরকার বিরোধী কিছু করে তাহলে আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে ডিবি তুলে নেওয়ার বিষয়ে আলাপকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা এ প্রতিবেদককে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মেয়েটি কিছু করেছে কিনা আমি দেখিনি, যদিও করে থাকে তবে আইন তার ব্যবস্থা নিবে। এই মেয়েটি আমার ডিপার্টমেন্টের। কথা হলো অন্য কোন ডিপার্টমেন্ট থেকে কিছু হচ্ছে না কেন। আমাদের এই শিক্ষার্থীরা যদি জেনে বুঝে কিছু করে তাহলে এক কথা, আর না বুঝে কারো প্ররোচনায় করলে আরেক কথা। বর্তমানে সমাজের যে অবস্থা তাতে মনে হচ্ছে ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস দেওয়াই অনেক কিছু। শিক্ষার্থীরা যদি বাজে ভাষা ব্যবহার করে আমি মনে করি সেটা ঠিক নয়। আমার জানা মতে, যে মেয়েটাকে ধরে নিয়ে গেছে সে পড়ালেখা তেমন করে না। প্রতিটা সেমিস্টারে সে ফেল করে। তাহলে সে কোথায় কি করে সময় নষ্ট করে? মেয়েটা কী আসলেই ঐ সব করে? সে তো নিজেরই ক্ষতি করছে। আমি শিক্ষার্থীদের মোটিভেট করি পড়ালেখা করে একটা অবস্থানে দাঁড়াবার জন্য।

তিনি আরো বলেন, কোটা আন্দোলনের যেসব শিক্ষার্থী জেলে আছে তাদের নিজেদেরও ক্ষতি হচ্ছে। তারা এমনভাবে কথা বলে যেন তারা সবই বুঝে। কোটার সাথে এখন রাজনীতির কোটা যোগ হওয়ায় আজ শিক্ষার্থীদের এ অবস্থা। বামবাদীদের ইতিহাস দেখলে দেখা যায়, অনেক মেধাবী শিক্ষার্থীরা তাদের পড়াশুনা নষ্ট করে সমাজ পরিবর্তনের জন্য জীবন বিলিয়ে দিয়েছে। কিন্তু আজ বামবাদীদের অবস্থা ভালো নয়। বামবাদী হোক, মৌলবাদী হোক বা সরকারবাদী হোক অতিরিক্ত কিছুই ভালো নয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ