প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্যানার, বিলবোর্ডে ছবি দিয়ে নমিনেশন পাওয়ার যাবে না : কাদের

আহমেদ জাফর : আগস্ট মাস শোকের মাস। এ মাসে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বিলবোর্ড ও ব্যানার ছবি ব্যাবহার করা নিষেধ ছিল আগে থেকেই। তারপরেও অনেকেই বড় করে ছবি দিয়ে ব্যানার ঝুলিয়েছেন এ বিষয়ে,আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ছবি দিয়ে ব্যানার ও বিলবোর্ড করে নমিনেশন পাওয়া যাবে না। নমিনেশন পেতে হলে দেশের জন্য দলের জন্য কাজ করতে হবে।

শনিবার (১১আগস্ট) ধানমন্ডি ৩২ নাম্বার আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ আয়োজিত ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, বিলবোর্ডে সৌজন্যে ছবি দেওয়া হয়ে থাকে কিন্তু সৌজন্যে নাম দিলে কি হয়? বিলবোর্ডে ছবি দিয়ে যারা আত্মপ্রচারে নিমজ্জিত তাদের রাজনীতি নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। প্লিজ এসব বন্ধ করুন। ইলেকশন সামনে, এসব ছবি দিয়ে নমিনেশন পাওয়া যাবে না।

বঙ্গবন্ধু একজন বিশ্বের আদর্শ রাজনৈতিক নেতা ছিলেন উল্লেখ করে বলেন, বঙ্গবন্ধরু আদর্শের রাজনীতি করতেন আমরা তারই অনুসারী। তিনি দেশ ও জাতির জন্য রাজনীতি করতেন আমাদের এসব বিষয় অনুসরন করে রাজনীতি করতে হবে। বড় বড় ছবি দিয়ে ব্যানার করে রাজনীতি হয় না, এতে নমিনেশন পাওয়া যায় না। নমিনেশন পেতে হলে জনগণের জন্য কাজ করতে হবে। যে যে এলাকা থেকে নমিনেশন পাওয়ার আশা করেন সেই এলাকার জনগণের প্রতি ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা অর্জন করেন।

গতশুক্রবার এক সংবাদ সম্মেল করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেছেন,সরকারের শেষ সময় এসে গেছে । ‘আমি অনেক দিন আগে একটি কথা বলেছিলাম, অতি দ্রুত রাজনীতিতে পরিবর্তন ঘটবে। কখন, কোথায়, কী ঘটবে আমরা কেউ তা জানি না। এটুকু জানি, এই সরকারের শেষ সময় এসে গেছে। দ্রুত বাংলাদেশের রাজনীতিতে পরিবর্তন ঘটবে। তার এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় কাদের বলেন, আলতু ফালতু লোকের কথা সরকার বদলাবে না। যিনি কথায় কথায় দল বদলান তিনি কি করে সরকার বদলানোর কথা বলেন? সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে রেখে তিনি জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেছিলেন, তিনি হলেন, সেই নেতা যার কথার কোন মূল্য নেই, যখন খুশি যেভাবে খুশি তিনি এ কথায় কথায় দল বদল করে।

সরকার বদলাতে হলে জনগণের ভোটের মাধ্যমে বদলাতে হবে, জনগণের ভোটের মাধ্যমে সরকার নির্বাচিত হবে কার কথায় বদলাবে না।

বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএনপির’ নেতিবাচক রাজনীতি দিন শেষ এখন আর জনগণ নেতিবাচক রাজনীতি বিধ্বংসী রাজনীতি দেখতে চায় না। দেশের মানুষ তারা উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড দেখতে চায়।
বিএনপির বিধংসী রাজনীতির দিন শেষ সময় শেষ হয়েছে। এখন নেতিবাচক রাজনীতি করারও আহবান করেন।

তিনি বলেন, দেশ ও বিদেশে রাতের অন্ধকারে বিভিন্ন দলের সাথে বৈঠক করে নালিশ করছে বিএনপি। বৈঠক করে নালিশ করে ক্ষমতায় আসা যায় না, ক্ষমতায় আসতে হয় জনগণের আস্থা ও ভালোবাসা অর্জন করে জনগণের ভোটের মাধ্যেমে।

বঙ্গবন্ধুর কিছু উক্তি উল্লেখ করে তিনি বলেন,নেতারা বিদেশে যেতে চায় আর কথা বেশি বলতে চায়। মূলত নেতাদের জনগণের কাছে থেকে ভালোবাসা অর্জন হচ্ছে একজন রাজনৈতিক ব্যক্তির আদর্শ আমাদের এ আদর্শকে স্মরণ করে এগিয়ে যেতে হবে।

নেতাদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, একন সময় ভালো না। সীমানা পেরিয়ে বক্তব্য রাখবেন না। সরকার বিভ্রান্ত হয় এমন কথা বলবেন না। যারা কথা বলবেন, তারা যেন হোমওয়ার্ক করে কথা বলবেন। রাজনীতি নিয়ে কথা বলার আগে নেত্রীর সঙ্গে কথা বলে নিবেন।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছার সভাপতিত্বে, আরো উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম প্রমূখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত