প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মার্চেন্ট ব্যাংক ও স্টক ব্রোকারের ঋণ সাড়ে ৮ হাজার কোটি টাকা

ফয়সাল মেহেদী: শেয়ারবাজারের ইন্টারমিডিয়েট মার্চেন্ট ব্যাংক ও স্টক ব্রোকাররা ব্যাংক ও ব্যাংকবহির্ভুত আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে মোট ৮ হাজার ৪৯০ টাকা ঋণ করেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ২০১৭ সালের ফাইন্যান্সিয়াল স্ট্যাবিলিটি প্রতিবেদনে এ তথ্য মিলেছে।

প্রতিবেদনের তথ্যমতে, শেয়ারবাজারের মার্চেন্ট ব্যাংক ও স্টক ব্রোকাররা ব্যাংক থেকে মোট ঋণ করেছে ৪ হাজার ৮০০ কোটি টাকা। এর মধ্যে মার্চেন্ট ব্যাংকগুলো ঋণ করেছে এক হাজার ৯৭০ কোটি টাকা। তবে এর মধ্যে কেউ ঋণ খেলাপি হয়নি। আর অন্যান্য স্টক ব্রোকাররা ঋণ করেছে ২ হাজার ৮৩০ কোটি টাকা, যার মধ্যে খেলাপি হয়েছে ১০ কোটি টাকা।

এদিকে ব্যাংকবহির্ভুত আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে মার্চেন্ট ব্যাংক ঋণ নিয়েছে ২ হাজার ৪৩০ কোটি টাকা। আর মার্জিন লোন হিসেবে আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ হয়েছে এক হাজার ২৬০ কোটি টাকা। সবমিলিয়ে ঋণ ৩ হাজার ৬৯০ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালে ব্যাংক খাতে ঋণের পরিমাণ ১ লাখ ২৪ হাজার ৪৭০ কোটি টাকা বেড়ে হয়েছে ৭ লাখ ৯৮ হাজার ১৯০ কোটি টাকা। এসময়ে খেলাপি ঋণও ৬২ হাজার ১৭০ কোটি থেকে বেড়ে হয় ৭৪ হাজার ৩০২ কোটি টাকা।

আলোচ্য সময়ে ৪ হাজার ৮২০ কোটি টাকার খেলাপি ঋণ অবলোপন করা হয়। এর মধ্যে এক হাজার ৫০ কোটি টাকা খেলাপি ঋণ আদায় করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছে ব্যাংকাররা। ২০১৬ সালে ঋণ অবলোপন করা হয়েছিল ৪ হাজার ৪৭০ কোটি টাকা।

জানা গেছে, খেলাপি ঋণের শীর্ষে রয়েছে পোশাক খাত। আগের বছরের তুলনায় ২০১৭ সালে এ খাতের খেলাপি ঋণ ২ হাজার ৯৪০ কোটি টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৭৯০ কোটি টাকা। আর বস্ত্র খাতের খেলাপি ঋণের পরিমাণ আগের বছরের চেয়ে ২ হাজার ২৪০ কোটি টাকা বেড়ে হয়েছে ৭ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত